অর্থপাচার ইস্যুতে বক্তব্য ভুল ছিল বলে জানিয়েছে সুইস এমব্যাসি

|

ফাইল ছবি।

প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাইলেও সুইস ব্যাংকের তথ্য চাওয়া নিয়ে বক্তব্য ভুল ছিল বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে সুইজারল্যান্ড এমব্যাসি। শনিবার (২৭ আগস্ট) সকালে হাইকোর্টে এমন প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে।

গত ১০ আগস্ট জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাতালি চুয়ার্ড বলেন, বাংলাদেশ সরকার এখন পর্যন্ত সুইস ব্যাংক বা কর্তৃপক্ষের কাছে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য চায়নি। এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের কাছে সরকারের পদক্ষেপ জানতে চায় দুদক হাইকোর্ট। রাষ্ট্রপক্ষ জানায়, ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত সুইস ব্যাংকে থাকা বাংলাদেশের ৬৭ জনের তথ্য চাওয়া হয়েছে। তার মধ্যে কেবল ১ জনের তথ্য পাওয়া গেছে।

হাইকোর্ট বলে, দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের চেষ্টার পরও যেহেতু সুইস ব্যাংক থেকে অর্থপাচারীদের তথ্য পাওয়া যায়নি; তাই সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য প্রত্যাহার করা ছাড়া উপায় নেই। এ বিষয়ে আগামীকাল আদেশ দেবে হাইকোর্ট।

আরও পড়ুন: ‘না জেনে বক্তব্য দিয়েছেন রাষ্ট্রদূত’; সুইস ব্যাংকে অর্থপাচার ইস্যুতে হাইকোর্ট

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply