ঘটনার দিন ওমর সানী মাতাল ছিলেন: জায়েদ খান

|

ওমর সানী ও জায়েদ খান। ছবি: সংগৃহীত।

অপ্রীতিকর ঘটনায় আলোচনায় চিত্রনায়ক ওমর সানী এবং অভিনেতা জায়েদ খান। অভিযোগ, সম্প্রতি চলচ্চিত্র অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন দ্বন্দ্বে জড়ান দু’জন। ওমর সানীর দাবি, কয়েকদিন আগে জায়েদ খান ওমর সানীর স্ত্রী চিত্রনায়িকা মৌসুমীর সাথে খারাপ আচরণ করেছেন। তাই বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রবেশ করেই তিনি জায়েদ খানকে থাপ্পড় মারেন। এরপর নিজের পিস্তল বের করে ওমর সানীকে গুলি করার হুমকি দেন জায়েদ খান।

এ বিষয়ে অভিনেতা জায়েদ খানের সাথে কথা বলেছে যমুনা টেলিভিশন। তিনি ঘটনাটিকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও মিথ্যা আখ্যায়িত করে বলেন, ২-৩ দিন ধরে আমার লাইসেন্সকৃত পিস্তলটি আমার কাছে নেই। তাছাড়া কনভেনশন হলে অস্ত্র নিয়ে প্রবেশও করতে দেয়া হয় না। এটি সম্পূর্ণ একটি মনগড়া কাহিনী।

ঘটনার দিন ওমর সানী মাতাল ছিলেন উল্লেখ করে জায়েদ খান জানান, সেদিন তিনি মাতাল ছিলেন। তাই ঘটনার দিন খবর নাই, তার পারদিনও খবর নাই। দু’দিন পর মনগড়া কথা বলছেন। বিষয়টি আমার কাছে খুবই দুঃখজনক লেগেছে, কারণ যে কাজটি আমি করলামই না…। তাছাড়া ঘটনা সত্য হলে মৌসুমী ম্যাডাম এতোদিনে স্টেটমেন্ট দিতেন বা পত্র পত্রিকায় এ নিয়ে কথা বলতেন।

উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এ অপপ্রচার করা হচ্ছে দাবি করে তিনি জানান, আমার শিল্পী সমিতির রায় ছিল, সেটাকে কেন্দ্র করে উদ্দেশ্যপ্রণদিতভাবে এমন করা হয়েছে। সেখানে ডিপজল ভাই ছিলেন, রোজিনা আপা ছিলেন, অঞ্জনা আপা ছিলেন। ঘটনা সত্য হলে কেউ কি কিছুই দেখতেন না?

মৌসুমীর সাথে খারাপ আচরণ করার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তিনি শ্রদ্ধার মানুষ। তার সাথে খারাপ আচরণ করার শক্তি আমাদের নাই। তিনবার তাহলে আমি সেক্রেটারি হতে পারতাম না, আমি শিল্পীদের সম্মান রক্ষা করা মানুষ।

আরও দেখুন: মৌসুমীকে নিয়ে তর্ক, পিস্তল বের করে ওমর সানীকে গুলি করার হুমকি দিলেন জায়েদ খান!

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply