দক্ষিণ আফ্রিকায় ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা, ক্ষুব্ধ প্রেসিডেন্ট

|

করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ইস্যুতে দক্ষিণ আফ্রিকার ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় ক্ষুব্ধ প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা। অবিলম্বে সিদ্ধান্তটি প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

রোববার (২৮ নভেম্বর) রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা বলেন, বিশ্বকে সতর্ক করায় আজ তারা বৈষম্যের শিকার। নতুবা নিষেধাজ্ঞা জারির মাধ্যমেই ওমিক্রন ঠেকানো সম্ভব, এমন কথার কোনো বৈজ্ঞানিক ব্যাখা নেই।

এসময় প্রেসিডেন্ট বলেন, কয়েকগুণ সংক্রামক ওমিক্রনের সাথে ডেল্টা বা বেটা ভ্যারিয়েন্টের কোনো যোগসূত্র নেই। তবে গত কয়েক সপ্তাহ যাবৎ দক্ষিণ আফ্রিকায় বাড়তে থাকা সংক্রমণের জন্য করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট দায়ী, একথা স্বীকার করেন তিনি।

২৪ নভেম্বর প্রথমবার ওমিক্রনের তথ্য জানায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এরপরই আফ্রিকা মহাদেশের অন্তত ১০টি দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে ইউরোপ এবং অন্যান্য রাষ্ট্র। বাতিল বা স্থগিত করা হয় দেশগুলোর সাথে ফ্লাইট চলাচল।

আরও পড়ুন : করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট কতটা ভয়ঙ্কর?

এ ঘোষণায়ই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা। তিনি বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং প্রতিবেশী দেশগুলোর ওপর যারা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন, অবিলম্বে প্রত্যাহার করুন এমন সিদ্ধান্ত। নতুবা অর্থনীতি এবং জীবন-জীবিকার ওপর এর বড় রকমের প্রভাব পড়বে। নিষেধাজ্ঞা আরো করে ওমিক্রন ঠেকানো সম্ভব, এমন কোনো বৈজ্ঞানিক ব্যাখা নেই। উল্টো ধনী দেশগুলোর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কারণে দরিদ্র দেশগুলোতে টিকার সরবরাহ ব্যাহত হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply