দাম্পত্য কলহের জেরে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

|

বরগুনা প্রতিনিধি:

দাম্পত্য কলহের জের ধরে গলায় ফাঁস দিয়ে রুমা নামে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। তবে রুমার মা হালিমা বেগমের অভিযোগ শশুর বাড়ির লোকজনের নির্যাতনে মৃত্যু হয়েছে তার মেয়ের।

বরগুনার পাথরঘাটা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে সকাল ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রুমা উপজেলার কালমেঘা গাজীবাড়ি এলাকার শাহেদ গাজীর ছোট মেয়ে। ও পৌর এলাকার হাবিব মৃধার ছেলে জামালের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত তিন বছর পূর্বে জামাল ও রুমার বিবাহ হয়। তাদের রিফাত নামে এক বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। সংসার জীবনে টুকটাক বিষয় নিয়ে প্রায়ই ঝামেলা হত জামাল রুমার দম্পতির। এ নিয়ে দু’দিন আগে রুমা রাগ করে বাবার বাড়ি চলে যায়। পরে স্থানীয়দের বৈঠকের মাধ্যমে গতকাল শনিবার রাতে স্বামীর বাড়িতে আসে।

নিহত রুমার বড় বোন সুরমা আমাদের সময় অনলাইনকে জানান রাতে ও সকালে রুমাকে তার স্বামী জামাল মারধর করে বলে মোবাইল ফোনে তাকে জানান রুমা। এরপর সুরমা তার বোন রুমার শ্বশুর বাড়িতে গেলে দেখতে পায় রুমাকে নিয়ে হাসপাতালের দিকে রওয়ানা দিয়েছে শ্বশুর বাড়ীর লোকজন।

পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আরিফ হোসেন জানান, হাসপাতালে আসার পূর্বেই রুমার মৃত্যু হয়। মৃতের গলায় ফাঁস লাগানোর দাগ রয়েছে।

রুমার মা হালিমা বেগম জানান তার মেয়েকে মেরে রশিতে ঝুলিয়ে রেখেছে স্বামী জামাল ও শাশুড়ি আছিয়া।

এ ঘটনায় পাথরঘাটা থানা তদন্ত ওসি মো. সাইদুল ইসলাম বলেন, ময়না তদন্তের জন্য লাশ বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্তের শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।









Leave a reply