শাস্ত্রীই ভারতের কোচ; হেসন বাংলাদেশের?

|

গণমাধ্যমের সকল গুঞ্জন সত্য প্রমাণ করে শেষ পর্যন্ত রবি শাস্ত্রীকেই আরেক মেয়াদে ভারতের কোচ নিয়োগ দেয়া হলো। শুক্রবার সন্ধ্যায় কপিল দেবের নেতৃত্বে কোচ নিয়োগ কমিটি (সিএসএ) মুম্বাইয়ে কোচ প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার শেষে শাস্ত্রীর নাম ঘোষণা করে। কপিল ছাড়াও কমিটিতে আছেন সাবেক ক্রিকেটার অংশুমান গায়কোয়াড় ও সাবেক নারী ক্রিকেটার শান্তা রঙ্গস্বামী।

ভারতের হেড কোচ কে হচ্ছেন- এ নিয়ে বেশ ক’দিন ধরেই চলছে তুমুল আলোচনা। শাস্ত্রী ছাড়াও মাইক হেসন, টম মুডি, রবিন সিং, ফিল সিমন্স ও লালচাঁদ রাজপুতরা ছিলেন নিয়োগ কমিটির তালিকায়। এদের মধ্যে হেসন, রবিন সিং ও রাজপুত বিসিসিআই দপ্তরে সরাসরি হাজির হয়ে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন টম মুডি ও ভারতীয় দলের সঙ্গে বর্তমানে ক্যারিবিয়ান সফরে থাকা শাস্ত্রী। শেষ মুহূর্তে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন ফিল সিমন্স।

শাস্ত্রীকে কোচ ঘোষণা করে কপিল দেব জানান, আমরা এ বিষয়ে একমত হয়েছি। যে বিষয়টা তাকে এগিয়ে দিয়েছে সেটি হলো, সে ছেলেদের ভালো চেনে।

কোচ নিয়োগ কমিটি ১০০ নম্বরের মধ্যে সবাইকে মার্কস দিয়েছে। এরমধ্যে, শাস্ত্রীই সবচেয়ে বেশি নম্বর পেয়েছেন। তালিকায় এর পরের নামটির দিকেই তাকিয়ে আছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড- মাইক হেসন। শাস্ত্রীই পুনরায় নিয়োগ পেয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশের জন্য ফাঁকা থাকলেন সাবেক কিউই কোচ হেসন। তাহলে কেবল নাম ঘোষণার অপেক্ষা?









Leave a reply