চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিএফ’র চাল আত্মসাতের অভিযোগ

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জসীম উদ্দিনের বিরুদ্ধে ভিজিএফ’র চাল আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে।

আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে ভিজিএফ’র আওতায় বাউফল সদর ইউনিয়নে ৩হাজার ৪শ ৪০জন অসহায় দুঃস্থ ব্যক্তিকে জন প্রতি ১৫কেজি করে মোট ৫১.৬ টন চাল বরাদ্দ দেয় সরকার। চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন ওই তালিকায় ৩শ ৫০জনের নাম নিজে অন্তর্ভুক্ত করেন।

অভিযোগ রয়েছে ওই ৩শ ৫০জনের নামের বিপরীতে কাউকে কোনও চালের স্লিপ দেয়া হয়নি। এছাড়াও চাল নিতে আসা প্রত্যেক সুবিধাভোগীকে ৩থেকে ৪কেজি করে কম চাল দেয়া হয়। এ হিসেবে মোট বরাদ্দ থেকে প্রায় ১৭টন চাল কম দেয়া হয়েছে।

বুধবার সকাল ৭টা থেকে বাউফল ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে ওই চাল বিতরণ করা হয়। এসময়ে সময় ট্যাগ অফিসার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কে এম সোহেল রানা।

সরেজমিনে চাল নিতে আসা একাধিক ব্যক্তির চাল ওজন করে দেখা গেছে জন প্রতি ৩থেকে ৪কেজি কম চাল দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ট্যাগ অফিসার কেএম সোহেল রানা জানান, চাল ঠিকভাবেই দেয়া হয়েছে, চালের বস্তায় ঘাটতি থাকার কারণে কিছুটা কম হতে পারে।

তবে বাউফল সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন বলেন, রাজনৈতিকভাবে আমাকে হেনস্থা করার জন্য কিছু লোক এ ধরনের অপপ্রচার করছে। আর আমি যে কয়েকটি নাম নিয়েছি তাদেরকে প্রত্যেককে চাল নেয়ার জন্য স্লিপ দেয়া হয়েছে। কিছু লোক চাল নিতে আসেনি। যারা চাল নিতে আসেনি তাদের চাল রেখে দেয়া হয়েছে।









Leave a reply