শিশু কন্যাকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন

|

গাজীপুরের টঙ্গীতে নিজ শিশু কন্যাকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়। বুধবার সকালে গাজীপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত হলেন, শরীয়তপুরের কোদালপুর গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে মো. আইনাল মিয়া।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, টঙ্গীর এরশাদ নগর এলাকায় অভিযুক্ত আইনাল মিয়া ভাড়া বাসায় বসবাস করছিলেন। ৬ বছর আগে আইনাল মিয়ার স্ত্রী তার তিন মেয়েকে রেখে মারা গেলে তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। পরে দ্বিতীয় স্ত্রী চলে গেলে আইনাল মিয়া তার তিন শিশু কন্যাকে নিয়ে বসবাস করছিলেন। গত ২০১৫ সালের ১৫ এপ্রিল আইনাল মিয়া ভয়ভীতি ও প্রলোভন দেখিয়ে তার ১২ বছর বয়েসী শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করে। এভাবে বিভিন্ন সময় ওই শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করার ফলে মেয়েটি অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি প্রতিবেশীদের নজরে পড়লে ৬ মাসের অন্ত:সত্ত্বা ভিকটিমকে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে ওই ভিকটিম পিতার হাতে ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করলে মেয়েটির বাবা পালিয়ে যায়। পরে এঘটনায় মেয়েটির পক্ষে প্রতিবেশী রেখা বেগম বাদী হয়ে ওই বছরের ৩১ আগষ্ট টঙ্গী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর টঙ্গী থানার উপপরিদর্শক পরিমল বিশ্বাস তদন্ত শেষে অভিযুক্ত আইনাল মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘদিন শুনানি ও যুক্তিতর্ক শেষে আদালতের বিচারক এমএলবি মেছবাহ উদ্দিন আহমেদ বুধবার এ আদেশ দেন। আদালতের আদেশে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. শাহজাহান সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।









Leave a reply