ওভারথ্রো বিতর্ক: ভুল স্বীকার করলেন ফাইনালের আম্পায়ার

|

গোটা বিশ্বজুড়ে যা নিয়ে এখন আলোচনা চলছে। সমালোচনার ঝড়ও উঠেছে। তা নিয়েই শেষ পর্যন্ত মুখ খুললেন বিশ্বকাপ ফাইনালের ফিল্ড আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। ফাইনাল ম্যাচে একটি ওভারথ্রো নিয়েই বেধেছে গন্ডোগোল। যে ওভারথ্রো থেকে ছয় রান পেয়ে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। তাও আবার শেষ ওভারে।

সেটা তাঁর ‘ভুল’ মেনে নিচ্ছেন ধর্মসেনা। এবং এক রান দেওয়া উচিৎ ছিল বলেই তিনি মনে করছেন। সেই বলে দ্বিতীয় রান নেওয়ার সময় বেন স্টোকসের ব্যাটে লেগেই ওভারথ্রো হওয়া বল বাউন্ডারিতে চলে গিয়েছিল। শ্রীলঙ্কার আম্পায়ার ছয় রান দিয়ে দেন। এর পর ম্যাচ ড্র হয়ে যায়। ৫০ ওভারে ২৪১ রান করেছিল নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ডও থামে সেই রানেই। সুপার ওভারেও ম্যাচ ড্র হয়ে যায়। এবং বেশি বাউন্ডারি মারায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায় ইংল্যান্ড।

সমালোচনার কেন্দ্রে রয়েছে এই এই ওভারথ্রোতে দেওয়া রান নিয়েও। প্রাক্তন আম্পায়ার সাইমন টফেল বলেন, ইংল্যান্ডকে ছয় না পাঁচ রান দেওয়া উচিৎ ছিল। কারণ যখন বল থ্রো করা হয়েছিল তখন ব্যাটসম্যান দ্বিতীয় রান নিয়ে জায়গায় পৌঁছয়নি।

রবিবার শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন টেস্ট ক্রিকেটার ধর্মসেনা সানডে টাইমসকে বলেন, তাঁর সামনে টেলিভিশন রিপ্লে দেখার সুযোগ ছিল না যেখানে তিনি দেখতে পারতেন ব্যাটসম্যান লাইন ক্রস করেছেন কিনা। তিনি বলেন, ‘‘আমি মেনে নিচ্ছি আমার বিচারে ভুল ছিল। যখন আমি এখন টিভি রি প্লে দেখছি তখন সেটা বুঝতে পারছি।”

ধর্মসেনাও দক্ষিণ আফ্রিকার মারাইস এরাসমাস ফিল্ড আম্পায়ার ছিলেন ফাইনালের। ধর্মসেনা বলেন, ‘‘আমাদের মাঠে টিভি রি প্লে দেখার সুযোগ নয় এবং আমার সিদ্ধান্তের জন্য আমার কোনও অপরাধ বোধ নেই।” এটা শুধু তার একার ভুল নয়, ছিল সামষ্টিক ভুল- তেমনটাই বলছেন তিনি।

ধর্মসেনা জানিয়েছেন, এই সিদ্ধান্ত নিতি একা নেননি। তিনি বলেন, ‘‘আমি লেগ আম্পায়ার (এরাসমাস)-এর সঙ্গে কমিউনিকেশন সিস্টেমের মাধ্যমে আলোচনা করি যা অন্যান্য আম্পায়ার এবং ম্যাচ রেফারিও শুনতে পেয়েছেন। যখন তাঁরা কেউ টিভি রি প্লে দেখল না তখন তাঁরাও নিশ্চিত ছিল ব্যাটসম্যান দ্বিতীয় রান সম্পূর্ণ করে ফেলেছিল। তার পরই আমি আমার সিদ্ধান্ত দিই।”









Leave a reply