সোহরাওয়ার্দীতে মুক্ত প্রার্থনায় অংশ নিলেন পোপ

|

সফরের দ্বিতীয় দিনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের মুক্ত উপাসনা ও যাজকদের অভিষেক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেছেন পোপ ফ্রান্সিস। এতে অংশ নেন দেশের প্রায় আশি হাজার রোমান ক্যাথলিক। বাংলাদেশের মানুষ ও বিশ্বের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় প্রার্থণা করেন পোপ।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার পরে প্রার্থনা ও যাজকদের অভিষেক মঞ্চে হাজির হন পোপ। এসময় দুই হাত তুলে প্রার্থনায় অংশ নেয়াদের শুভেচ্ছা জানান পোপ। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকরাও প্রার্থনাসভায় অংশ নেন। ষোল জনকে যাজক হিসেবে অভিষিক্ত করার আগে আগতদের উদ্দেশ্য সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন পোপ।

তিনি বলেন, অনেক কষ্ট করে এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়াতে এটাই প্রমাণিত হয়, যিশুর জন্য সবার অনেক ভালবাসা। পর্বতের উপর যিশুর অস্টকল্যাণ বাণীর আলোকে সেই প্রেরণা নিয়ে বাংলাদেশে যিশুর অনুসারীদের এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান পোপ।

নব অভিষিক্ত যাজকদের জন্য সবাইকে প্রার্থনা করার আবেদন রাখেন পোপ ফ্রান্সিস।

তার আজকের কর্মসূচীর মধ্যে আরও রয়েছে- বিকেল সাড়ে তিনটায় ভ্যাটিকান দূতাবাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বৈঠক, বিকালে রমনা ক্যাথিড্রাল পরিদর্শন, বিশপদের সাথে বৈঠক এবং ধর্মসভা।

প্রবীণ যাজক ভবনে পোপের সঙ্গে বাংলাদেশের বিশপদের বিশেষ বৈঠকও হবে বিকালে। সেখানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি সারাদেশ থেকে আগত ধর্ম যাজকদের সাথে কথা বলবেন পোপ। আর্চবিশপ হাউসের মাঠে শান্তির জন্য আন্তঃধর্মীয় ও আন্তঃমাণ্ডলিক সমাবেশে বক্তব্য রাখবেন তিনি। কাল সফরের শেষ দিনও যোগ দেবেন বিভিন্ন অনুষ্ঠানে। শনিবার বিকেল ৫টার দিকে রোমের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবেন পোপ ফ্রান্সিস।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply