পোপের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে নুরুল্লাহর পরিবার

|

ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস ঢাকায় পৌঁছাবেন আজ বিকালে। মূলত সব ধর্মের মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি গড়ে তোলার প্রয়াসেই তার এই সফর। বিশেষ করে মিয়ানমারে নিপীড়িত রোহিঙ্গা মুসলিমদের প্রতি নিজের সহমর্মিতার কথা জানাবেন তিনি।

ঢাকায় অবস্থানকালে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সরকারের উর্ধ্বতন কর্তাব্যক্তি ও বিভিন্ন ধর্মের নেতাদের সাথে সাক্ষাতের পাশাপাশি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির একটি প্রতিনিধি দলের সাথেও দেখা করবেন পোপ।

গত সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান বাংলাদেশে ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের প্রধান কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও। তিনি বলেন, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলবেন পোপ। সরকারের অনুমোদন ও সহযোগিতায় রোহিঙ্গাদের একটি ছোট দল পোপের সঙ্গে দেখা করবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও বলেছিলেন, প্রথমে এক দিনের সফরের পরিকল্পনা করা হয়েছিল। যে সময় সফরের পরিকল্পনা করা হয় তখন রোহিঙ্গা ইস্যুটি ছিল না। তাই রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প পরিদর্শনে যাওয়া পোপের সফর কর্মসূচিতে সংযুক্ত করা পরে অসম্ভব হয়ে পড়ে। এর বদলে রোহিঙ্গাদের একটি ছোট দলকে ঢাকায় আনা হবে। পোপ তাদের সাথে সাক্ষাৎ করে খোঁজখবর নেবেন।

এদিকে বার্তা সংস্থা এএফপি একটি রোহিঙ্গা পরিবারের সদস্যদের ছবি প্রকাশ করে জানিয়েছে পরিবারটি অন্যদের সাথে পোপের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে। মোহাম্মদ নুরুল্লাহ, তার স্ত্রী হাজেরা খাতুন তাদের তিন সন্তানকে নিয়ে সাথে পোপের সামনে হাজির হবেন। তবে মোট কতজন রোহিঙ্গা পোপের সঙ্গে সাক্ষাতে উপস্থিত থাকবেন তা জানানো হয়নি। এছাড়া নুরুল্লাহ বা তার পরিবার রাখাইন কী ধরনের নিপীড়নের শিকার হয়েছে সে বিষয়েও বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।









Leave a reply