শাজনীন হত্যা মামলায় শহীদুলের ফাঁসি কার্যকর

|

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মেয়ে শাজনীন তাসনিম রহমানকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলার আসামি শহীদুল ইসলাম শহীদের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। বুধবার (২৯ নভেম্বর) রাত দশটার কিছু আগে গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার মিজানুর রহমান রাতে জানান, বুধবার রাত পৌনে ১০টার দিকে শহীদুল ইসলামের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। শহীদুলের ভাই মহিদুল ইসলাম মরদেহ গ্রহণ করেছেন।

১৯৯৮ সালের ২৩ এপ্রিল রাতে রাজধানীর গুলশানে নিজ বাড়িতে খুন হন শাজনীন তাসনিম রহমান। এ ঘটনায় তার বাবা লতিফুর রহমান মামলা করেন। ২০০৩ সালের ২ সেপ্টেম্বর শাজনীনকে ধর্ষণ ও খুনের পরিকল্পনা এবং সহযোগিতার দায়ে ছয় আসামির ফাঁসির আদেশ দেন আদালত। ২০০৬ সালের ১০ জুলাই পাঁচ আসামি গৃহপরিচারক শহীদুল ইসলাম শহীদ, বাড়ির সংস্কার কাজের দায়িত্ব পালনকারী ঠিকাদার সৈয়দ সাজ্জাদ মইনুদ্দিন হাসান ও তার সহকারী বাদল, বাড়ির গৃহপরিচারিকা মিনু ও পারভীনের ফাঁসির আদেশ বহাল রাখেন।
তবে, নিম্ন আদালতে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া আরেক আসামিকে খালাস দেন হাইকোর্ট। গত ২ আগস্ট আসামিদের মধ্যে শহীদুল ইসলাম শহীদের ফাঁসির রায় বহাল রেখে বাকি চারজনকে খালাস দেন আপিল বিভাগ।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply