ধরে ধরে রিক্সার ‘হাওয়া’ ছাড়ছেন রিক্সা চালকরাই!

|

রাজধানীতে বিভিন্ন স্থানে আজ দিনভর রিক্সা চালকদের অবরোধ ও বিক্ষোভ চলেছে। ফলে অনেক রাস্তায় গাড়ি চলাচল করতে পারেনি। সম্প্রতি ঢাকা সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকার প্রধান সড়কে রিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। এর প্রতিবাদে রাস্তায় নামেন চালকরা।

সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে আবাসিক এলাকায় এবং স্থানীয় গলি রাস্তায় রিক্সা চলাচলে বাধা না থাকলেও আজ বিভিন্ন এলাকায় রিক্সা চলাচল বন্ধ রাখেন চালকরা নিজেরাই।

বিকাল ৫টার দিকে কুড়িল চৌরাস্তা এলাকায় রিক্সা চালকদের দল বেঁধে মহড়া দিতে দেখা যায়। একটি গলির ভেতর থেকে হঠাৎ দুটি রিক্সা মূল সড়কের দিকে এগিয়ে আসতে থাকলে মহড়ারত চালকরা রিক্সাগুলোকে থামান। তারা রিক্সা চালাচ্ছে কেন জানতে চান। ওই দুই চালক নীরব থাকলে মহড়ারত চালকরা দুটি রিক্সার চাকার হাওয়া ছেড়ে দেন। এরপর সেখানেই যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে ফিরে যান ওই দুই চালক।

এদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের প্রাথমিক আশ্বাসে আজকের মতো রাজধানীর মালিবাগ, খিলগাঁও ও কমলাপুর এলাকা থেকে অবরোধ তুলে নিয়েছেন রিকশাচালকরা। তবে সায়েদাবাদ এলাকায় রিকশা শ্রমিকদের অবরোধ এখনও চলছে।

সড়কে রিকশা চলাচলে বাধা দিলে আগামী ১১ জুলাই আরও বড় ধরনের আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন তারা।

সবুজবাগ থানার ওসি সোহরাব হোসেন জানান, আন্দোলন বন্ধ করতে তাদের রিকশা চালাতে অনুমতি দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

বাংলাদেশ রিকশা ও ভ্যান মালিক সমিতির সহ-সভাপতি মো. আব্দুস ছোবহানের সভাপতিত্বে মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত মুগদা বিশ্বরোড মুগদা ষ্টেডিয়ামের সামনে একটি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সেখানে রিকশা চালক ও মালিকরা বলেন, রাজধানীতে ৮৬ হাজার বৈধ রিকশা রয়েছে। বাকী যা রয়েছে তা অবৈধ। ওই অবৈধ রিকশা উচ্ছেদ করা হলেই সড়কে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে ও যানজটমুক্ত হবে। যেখানে রাস্তা সেখানে চলবে বৈধ রিকশা। এর বাহিরে অন্য কোনো সিদ্ধান্ত আমরা মানব না।

মানববন্ধনে রিকশা ও ভ্যান মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ আল্টিমেটাম দিয়ে বলেন, আগামীকাল বুধবার সকাল ১১টায় জাতীয় রিকশা ভ্যান শ্রমিক লীগের কার্যালয় ২৫ বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে সংবাদ সম্মেলন করা হবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply