পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশু ও নারীসহ আহত ১৫

|

নড়াইল সদরের বাঁশগ্রাম ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশু ও নারীসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

আহতের স্বজনরা জানান, আজ সকালে প্রথমে যদুনাথপুর গ্রামের জাকির হোসেনের স্ত্রী রোকসানা বেগমকে পাগলা কুকুরে কামড়ায়। এরপর রহমতপুর গ্রামের আক্কাস আলীর মেয়ে আখি, খানম, যদুনাথপুর গ্রামের জাকির হোসেনের স্ত্রী রেকসোনা বেগম, মিন্টু দাসের ছেলে সাগর দাস, ফুলশ্বের গ্রামের মিলন মিয়ার ছেলে ইয়াসিন, তারাপদ গাছীর ছেলে সন্দীপ, কালাম মিয়ার ছেলে মেহেদী, দৌলতপুর গ্রামের দ্বীন মোহাম্মদের স্ত্রী হেনা বেগম, আব্দুস ছাত্তারের ছেলে শরিফুল, আউড়িয়া গ্রামের ইমদাদুলের ছেলে আকাশ, খায়রুল ইসলামের ছেলে তানভির (৮) ও মনির শেখের ছেলে মাসুম অন্তত ১৫জনকে কামড়িয়ে আহত করে।

নড়াইল সদর হাসপাতালে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক রোখসানা বিনতে আকবর জানান, সকাল থেকে পর্যায়ক্রমে কুকুরে কামড়ানোর রোগী এসেছে। এসব রোগীকে আমরা যথাসাধ্য চিকিৎসা সেবা দিয়েছি।

এদিকে পাগলা কুকুরের কামড়ের খবর কিছুক্ষণের মধ্যে বাশগ্রাম ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।









Leave a reply