লর্ডসেও ভরসা সাকিব

|

লর্ডসে কিছুক্ষণ পরই শুধু হয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ পাকিস্তান ম্যাচ। এই ম্যাচ জিততে তেতে আছে টাইগাররা। গত ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হেরে সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন ভেঙে চুরমার হওয়ার পর আজ শেষ ম্যাচে নিজেদের উজার করে দিতে চাইবে মাশরাফি-সাকিবরা।

বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফরমেন্স করে যাওয়া সাকিবের ওপরই আজও আস্থা থাকছে নিযুত ক্রিকেটভক্তের। টিম ম্যানেজমেন্টও তার ওপর নির্ভর করছে। সাকিবের আরেকটি দুর্দান্ত পারফরমেন্স আর অন্যদের সাপোর্ট যোগ হলে ম্যাচ বাংলাদেশের পক্ষেই কথা বলবে।

বিশ্বকাপে ম্যাচের পর ম্যাচ দলকে অনেকটা একাই টেনে নিয়ে গেছেন অলরাউন্ডার সাকিব। ব্যাট বলে সমান পারফরমেন্স করে নিজেকে উঠিয়ে নিয়েছেন অনন্য উচ্চতায়। গড়েছেন একের পর এক বিশ্ব ও বিশ্বকাপ রেকর্ড। ব্যাট হাতে এরই মধ্যে ৫৪২ রান করে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক, এক নম্বরে থাকা রোহিত শর্মার চেয়ে যা মাত্র ২ কম। অথচ রোহিতের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলে এত রান করেছেন সাকিব।

ভাগ্য সহায় নেই বলে সেমিতে খেলতে পারছেন না। খেলতে পারলে টুর্নামেন্টসেরা স্বীকৃতি পেতেন সাকিবই। এখনও সেই সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়নি।

সাকিব বাঁহাতি স্পিনে ৭ ম্যাচে উইকেট ১১টি, শিকারির তালিকায় ১৪তম। ৫ উইকেট পেয়েছেন আফগানিস্তানের বিপক্ষে, টানা দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন ইংল্যান্ড ও উইন্ডিজের বিপক্ষে। গড়েছেন বিশ্বকাপের এক আসরে ৫০০ রান ও ১০ উইকেট নেওয়ার প্রথম কীর্তি, ম্যাচে ফিফটি ও ৫ উইকেটে গড়েছেন দ্বিতীয় নজির। বিশ্বকাপের রেকর্ডে নাম লেখানোর পথে বাংলাদেশের সেরার কীর্তি তো হয়েছেই।

আজও একটি মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন সাকিব। আর মাত্র ১৯ রান নিজের নামের পাশে যোগ করতে পারলেই বিশ্বকাপের সেরাদের সেরা তালিকায় নাম উঠে যাবে এ অলরাউন্ডারের।

আজকের ম্যাচে ১৯ রান করতে পারলেই সাকিব বিশ্বকাপে সর্বকালের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের ১০ জনের তালিকায় ঢুকে যাবেন। এ তালিকায় ওপরের দিকে আছেন শচীন টেন্ডুলকার, রিকি পন্টিং, কুমার সাঙ্গাকারা, ব্রায়ান লারার মতো কিংবদন্তিরা। আর ১৮ রান করলে সব বিশ্বকাপ মিলিয়ে সাকিবের মোট রান হবে ১১০০।

এদিকে পাকিস্তানের বিপক্ষেও সাকিবের রেকর্ড বরাবরই ভালো। স্বপ্নের মতো এক বিশ্বকাপ কাটানোর পরও ক্যারিয়ার গড় যেখানে ৩৭.৭০, সেখানে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৫ ইনিংসে গড় ৪০.৭৫, রান ৪৮৯। আছে একটি সেঞ্চুরি এবং তিনটি ফিফটি। এছাড়া বল হাতে আছে ৩০.৬২ রান গড়ে ২১ উইকেট। সাফল্যের সেই ধারা এবং বিশ্বকাপ ফর্ম ধরে রাখলে আজ লর্ডসেও দেখা যেতে পারে দারুণ কিছু। সবমিলিয়ে সাকিবকে ঘিরেই প্রত্যাশার দিগন্ত তৈরি হয়েছে ক্রিকেটপ্রেমিদের।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply