‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি ব্যবহার করেননি পোপ

|

Pope Francis greets Myanmar State Counsellor Aung San Suu Kyi during a private audience at the Vatican May 4, 2017. Osservatore Romano/Handout via REUTERS ATTENTION EDITORS - THIS PICTURE WAS PROVIDED BY A THIRD PARTY. EDITORIAL USE ONLY. NO RESALES. NO ARCHIVE

খ্রিস্টান ধর্মের রোমান ক্যাথলিক শাখার প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস বলেছেন, মিয়ানমারের সবচেয়ে বড় সম্পদ নাগরিকরা, কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে তারা সংঘাত ও বর্বরতার শিকার। এরফলে সমাজে বিভাজন সৃষ্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন।

আজ মঙ্গলবার বিকালে মিয়ানমারের রাজধানী নেইপিদোতে দেশটির নেত্রী অং সান সু চির সাথে বৈঠকে পোপ এসব কথা বলেন। তবে বিবিসি জানিয়েছে, বৈঠকের সময় ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি ব্যবহার করেননি পোপ। লিখিত বক্তব্যে পোপ ‘সব জাতিগোষ্ঠির মানুষের জন্য সম্মান প্রদর্শনের’ দাবি জানান।

মিয়ানমার সরকার ‘রোহিঙ্গা’ শব্দ ব্যবহার করে রোহিঙ্গাদের পরিচয় দেয়ার ঘোর বিরোধী। মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদেরকে ‘অবৈধ বাঙালি’ বলে মনে করে। গত ২৫ আগস্টের পর ‘বাঙালি’ শব্দের ব্যবহার নিয়ে ঢাকার পক্ষ থেকে আপত্তি জানানো হয়েছিলো।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply