আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ আমলে নিচ্ছে না পুলিশ, অভিযোগ পরিবারের

|

বগুড়া ব্যুরো:

ফেইসবুকে আপত্তিকর ছবি ছড়ানোর ঘটনার জেরে বগুড়ায় স্কুলছাত্রী মাইসা ফাহমিদা সেমন্তি আত্মহত্যা করেছে-এমন অভিযোগ করেছে তার পরিবার। তবে পুলিশ আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা নিচ্ছে না এমন অভিযোগ ওই স্কুলছাত্রীর বাবার।

আত্মহত্যার আগে সুইসাইড নোটে একজন বন্ধুর কথাও উল্লেখ করেছে মাইসা। তার বাবা আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিতে গেলেও পুলিশ সেই অভিযোগ গ্রহণ করেনি।

মাইসার বাবা হাসানুল মাশরেক রুমন জানান, মাইসা শহরের ওয়াইএমসিএ পাবলিক স্কুল ও কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। গত ১৭ জুন রাতে নিজের শোবার ঘরে মাইসা গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে। পরদিন সকালে মরদেহ উদ্ধারের পর স্বজনরা মাইসার লিখে যাওয়া সুইসাইড নোট পান। সুইসাইড নোটে মাইসা আত্মহত্যার বিস্তারিত কারণ উল্লেখ না করলেও তার এক বন্ধুর নাম ও মোবাইল নাম্বার লিখে রেখে যায়। স্বজনরা জানান, মাইসার এক বন্ধু তার আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগে ছড়ানোর পর তাদের মেয়ে আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে।

এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করলেও পুলিশ মামলা হিসেবে তা রেকর্ড করছে না বলে জানিয়েছেন স্বজনরা।

সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান যমুনা নিউজকে জানান, মেয়েটির বাবা কোনো লিখিত অভিযোগ নিয়ে থানায় আসেন নি। তবে ঘটনার পরই পুলিশ অস্বাভাবিক মৃত্যমামলা দায়ের করে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে। পরিবার আলাদা অভিযোগ নিয়ে এলে অবশ্যই পদক্ষেপ নেয়া হবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply