২০২২ সালে চালু হবে মোংলা-খুলনা রেলসড়ক, সংযুক্ত হবে ভারত, নেপাল ও ভুটান

|

বাগেরহাট প্রতিনিধি:

রেল মন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, দেশের দ্বিতীয় সমুদ্র বন্দর মোংলার সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য সরকার খুলনা থেকে মোংলা পর্যন্ত রেল লাইন স্থাপনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। আগামী ২০২২ সালে প্রকল্প মেয়াদের মধ্যেই কাজ শেষে ওই বছরেই মোংলা-খুলনা রেল চালু হবে। খুলনা থেকে মোংলা প্রকল্পের আওতায় খুলনার ফুলতলা থেকে বাগেরহাটের মোংলা বন্দর পর্যন্ত চলমান কাজের রেলপথ ও রূপসা রেল সেতু নির্মান কাজের অগ্রগতি ঘুরে দেখেন রেল মন্ত্রী।

নির্মাণাধীন খুলনা-মোংলা রেল প্রকল্পের সুযোগ সুবিধার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, এই রেল পথ দিয়ে যাত্রী পরিবহণসহ মোংলা বন্দরের মালামাল পরিবহণ করা হবে। এছাড়া উত্তর অঞ্চলের পঞ্চগড় থেকে বাংলাবন্ধ হয়ে ভারতের শিলিগুড়ির সাথে এ রেল যোগাযোগ সরাসরি সংযুক্ত হবে। এর ফলে ভারত, নেপাল ও ভুটান সরসরি রেল পথে পণ্য পরিবহনে মোংলা বন্দর ব্যবহারের সুযোগ পাবে। এই রেলপথের মধ্যদিয়ে জাতীয় অর্থনীতির অগ্রগতিতে বড় ধরণের ভূমিকা রাখবে এ মোংলা বন্দর।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের রেষ্ট হাউস পারিজাতে খুলনার রেল বিভাগ ও মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে বৈঠক শেষে সাংবাদিকের এসব কথা জানান মন্ত্রী সুজন।

এ সময় মন্ত্রীর সাথে ছিলেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও কর্তৃপক্ষের সদস্য (অর্থ) আফসানা ইয়াসমিন, রেল প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী আ রহিমসহ অন্যান্যরা।

পরে মন্ত্রী মোংলা-খুলনা রেল লাইন ও খুলনার রূপসা নদীর উপর নির্মিতব্য রেল সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।









Leave a reply