ভৈরবে কিশোর রুপক হত্যা মামলা, দুই আসামির জামিন নাকচ

|

ভৈরব প্রতিনিধি:

ভৈরবে কিশোর রুপক হত্যা মামলায় আদালতে দুই আসামির জামিন আবেদন নাকচ করা হয়। আজ মঙ্গলবার সকালে কিশোরগন্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে দুই আসামি শাহ সুফিয়ান ও ইয়ারফাত পাটোয়ারীর পক্ষে এড. ফেরদৌস আহমেদ ও এড. মিজানুর রহমান জামিনের আবেদন করে।

এসময় রাষ্ট্রপক্ষের পাবলিক প্রসিডিউর ( পি পি) এড. শাহ আজিজুল হক জামিনের বিরোধীতা করে বলেন আসামিরা রাতে হত্যার পর লাশ গুম করতে চেয়েছিল। তারা দুজন মিলে বাসার সিসি ক্যামেরার সকল রেকর্ড ডিলেট করে দেয়। এই দুজন হত্যাকারী তিন কিশোরকে সহযোগীতা করে অপরাধ থেকে বাঁচাতে চেয়েছিল। কাজেই দুই আসামিকে জামিন দিলে তারা বাইরে গিয়ে মামলার তদন্তে প্রভাবিত করতে পারে। তাই তাদেরকে জামিন দেয়া যাবেনা বলে রাষ্ট্রপক্ষ আদালতে যুক্তি তুলে ধরেন।

উভয় পক্ষের যুক্তি তর্ক শুনে শুনানী শেষে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মোঃ সায়েদুর রহমান খাঁন দুই আসামির জামিন আবেদনটি নাকচ করে দেন। এসময় মামলার বাদী কিশোরের পিতা আদালতে উপস্হিত ছিলেন। এর আগে আসামি পক্ষ কিশোরগন্জের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার এজাহারভুক্ত ৫ আসামির জামিন চাইলে বিজ্ঞ আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে।

গত ৩০ মে রাত সাড়ে ৮ টায় ভৈরবের স্কুল ছাত্র ফারদিন আলম রুপককে (১৬) তিন বন্ধু মিলে হত্যা করে। এরা হলো রেজুয়ান কবির খাঁন মাহিন (১৮) রবিউল আওয়াল রাব্বি (১৯) ও আরাফাত পাটোয়ারী (১৮)। তারা মুক্তিপণ আদায়ে ব্যর্থ হয়ে রুপককে গলায় ছুরি লাগিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply