ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদরাসা ছাত্রকে হত্যার অভিযোগ

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদরাসা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ইশমাম (১১) নামে এক শিশুকে হত্যার অভিযোগ করেছেন তার স্বজনরা। সোমবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে সদর উপজেলার চালখিল এলাকার একটি পুকুর থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত ইশমাম সদর উপজেলার ছয়বাড়িয়া এলাকার সাঈদুল ইসলামের ছেলে। সে চালখিল মাদরাসার ছাত্র ছিল।

ইশমামের বাবা সাঈদুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, রোববার মাদরাসার অধ্যক্ষ আমাকে ফোন করে বলেছে আমার ছেলে খেলাধূলা করেনা। আমি বলেছি আমার ছেলে একটু শান্ত প্রকৃতির, সে খেলাধূলা পছন্দ করে না। সোমবার বিকেলে আমাকে ফোন করে বলা হয়েছে আমার ছেলে মারা গেছে। আমার ছেলেকে হত্যা করে তার মরদেহ পুকরে ফেলা হয়েছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

তবে চালখিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা উবায়দুল্লাহ্ অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে বলেন, তাদের ছেলে মারা গেছে। রাগ-ক্ষোভ থাকতেই পারে। বিকেলে সব ছাত্ররা মাদরাসার পাশে খেলাধূলা করে। মাদরাসার সংলগ্ন কয়েকটি জমির পাশে একটি পুকুর রয়েছে। সেই পুকুরের পানিতে ডুবেই ইশমামের মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফুল ইসলাম বলেন, মাদরাসা কর্তৃপক্ষ বলছে পানিতে ডুবে মারা গেছে আর স্বজনরা বলছে হত্যা করা হয়েছে। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে মরদেহের ময়নাতদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply