‌রিফাত হত্যা মামলা‌য় সন্দেহভাজন সাইমনকে পটুয়াখালী থে‌কে আটক

|

পটুয়াখালী প্র‌তি‌নি‌ধি
বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যা মামলায় জ‌ড়িত থাকার স‌ন্দেহে সাইমুন না‌মের একজন‌কে পটুয়াখালী থে‌কে আটক ক‌রে‌ছে পু‌লিশ। আটককৃত সাইমুন ওই মামলার প্রধান আসামি নয়‌নের কা‌ছের বন্ধু। বর্তমা‌নে সাইমুন পটুয়াখালী সদর থানার হাজতখানায় আ‌ছে। তা‌কে জিঙ্গাসাবা‌দের জন্য বরগুনা নেয়া হ‌বে।

গতকাল গভীর রা‌তে শহ‌রের সরকারী বা‌লিকা বিদ্যালয় সড়‌কের তার নানার বাসা থে‌কে বরগুনা ও পটুয়াথালী সদর থানা পু‌লিশ আটক ক‌রে।

পটুয়াখালী সদর থানার অ‌ফিসার্স ইনচার্জ ও‌সি মোস্তা‌ফিজুর রহমান যমুনা‌নিউজ‌কে জানান, গোপন সংবা‌দের ভি‌ত্তি‌তে শহ‌রের সরকারী বা‌লিকা বিদ্যালয় সড়‌কের নানার বাসা থে‌কে সাইমুন‌কে আটক করা হ‌য়ে‌ছে। তার বাবার নাম মোঃ কাওসার হো‌সেন লিটন। বরগুনার স্টে‌ডিয়াম সড়‌কে তা‌দের বাসা। ত‌বে সে রিফাত হত্যা মামলার এজাহার ভুক্ত আসামি না। ওই মামলার অজ্ঞাতনামা আসামি হিসা‌বে স‌ন্দেহাতীতভা‌বে তা‌কে আটক দেখা‌নো হ‌য়ে‌ছে।

তি‌নি জানান, আসামিদের সা‌থে সাইমু‌নের বন্ধুত্ব র‌য়ে‌ছে।

অপর‌দি‌কে গ্রেপ্তারকৃত সাইমুন যমুনা‌নিউজ‌কে জানান, রিফাত হত্যার দুই‌দিন পর সে পটুয়াখালীর তার নানার বাসায় এসে‌ছে। তার স্ত্রীর ক‌লে‌জের পরীক্ষা সংক্রান্ত কা‌জের জন্য সে পটুয়াখালীর ওই বাসায় আ‌সে।

সাইমুন আ‌রো জানায়, রিফাত হত্যা মামলার আসামিদের সা‌থেই নয় তার বন্ধুত্ব র‌য়ে‌ছে অ‌নে‌কের সা‌থে। ত‌বে এ ঘটনার সা‌থে সে কোন ভা‌বেই জ‌ড়িত না ব‌লেও দাবি ক‌রেন।

সাইমুন জানান, বন্ধুত্ব অ‌নে‌কের সা‌থেই থাক‌তে পা‌রে সেজন্য বন্ধু‌ত্বের পা‌পের শা‌স্তি নিরীহ বন্ধুরা কেন ভোগ কর‌বে।

এদি‌কে পু‌লি‌শের নির্ভর‌যোগ্য একা‌ধিক সূত্র জানায়, সাইমু‌নের মোবাইল ফোন জব্দ করা হ‌য়ে‌ছে। অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তা‌রে পু‌লি‌শের সর্বত্র অ‌ভিযান অব্যাহত আ‌ছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply