সুনামগঞ্জে কিটনাশক খেয়ে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা

|

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে কিটনাশক খেয়ে স্বামী-স্ত্রী আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার বেলা ১টার দিকে উপজেলার ফেঁনারবাক ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন জামালগঞ্জ থানার ওসি সাইফুল ইসলাম।

আত্মহত্যাকারীরা হলেন, তালুকদার (৫২) ও তার স্ত্রী তৃপ্তি রানী তালুকদার (৩৫)। এই দম্পতির এক ছেলে(৬) ও এক মেয়ে(৯) রয়েছে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার ধর্মীয়রীতিতে উপবাস করেন তালুকদার ও তার স্ত্রী তৃপ্তি রানী তালুকদার। দুপুরে তারা উপবাস ভাঙার জন্য প্রসাদ তৈরি করেন। এসময় প্রসাদে কিটনাশক মিশিয়ে নেন। পরে স্বামী-স্ত্রী দু’জনই এই প্রসাদ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। মা-বাবাকে অসুস্থ হতে দেখে ছেলে-মেয়েরা আশপাশের স্বজনদের ডেকে আনেন। স্বজনরা অসুস্থ দু’জনকে জামালগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাবার পথে তালুকদার মারা যান। অন্যদিকে জামালগঞ্জের কর্তব্যরত চিকিৎসরা উন্নত চিকিৎসরা জন্য তৃপ্তিকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল প্রেরণ করেন। সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তার তিনি।

জামালগঞ্জ থানার ওসি মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, দম্পতির পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন তালুকদার মানসিক সমস্যা ভুগছিলেন। দু’জনেইর লাশ ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতলের ময়নাতদন্তাকারী চিকিৎসক আমাকে জানিয়েছেন কিটনাশক পানেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। কি কারণে তারা আত্মহত্যা করেছে তাৎক্ষণিকভাবে বলা সম্ভব নয়।

এঘটনায় তালুকদারের ভাই নিশি কান্ত তালুকদার বাদী হয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করছেন বলেও তিনি জানান। এব্যাপারে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রফিকুল ইসলামের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply