মিয়ানমার পৌঁছেছেন পোপ ফ্রান্সিস

|

ছয় দিনের সফরে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের সফরে আসছেন পোপ ফ্রান্সিস। রোববার রাতে, ইতালির ফিউমিচিনো বিমানবন্দর থেকে নেইপিদোর উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। এখন মিয়ানমারে অবস্থান করছেন তিনি। মিয়ানমার হয়ে আগামী ৩০ নভেম্বর বিকেলে বাংলাদেশে আসবেন ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের সর্বোচ্চ এ ধর্মীয় নেতা।

দু’দিনের সফরে রাখাইন সংকট ইস্যুতে পোপ মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি আর সেনাপ্রধান মিন অং লাইংয়ের সাথে সাক্ষাত করবেন। এরপর, বাংলাদেশ সফরে আসবেন তিনি। তার এ আগমন সম্প্রীতি ও শান্তির একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলে জানিয়েছেন কার্ডিনাল ও আর্চ বিশপ প্যাট্রিক ডি’ রোজারিও। সকালে রাজধানীর আর্চবিশপ হাইজে সংবাদ সম্মেলনে পোপের সফরের বিস্তারিত তুলে ধরেন তিনি। জানান, রোহিঙ্গা পরিস্থিতি দেখতে কক্সবাজার না গেলেও রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদের সাথে ঢাকায় কথা বলবেন তিনি।

এরআগে, সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধ এবং বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন পোপ। রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পাশাপাশি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ধর্মীয় উপাসনায় যোগ দেবেন তিনি। এতে অন্তত ৮০ হাজার মানুষ অংশ নেবে বলে মনে করছেন আয়োজকরা। পোপের আগমন উপলক্ষে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে সবধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বিশেষ নিরাপত্তা কার্ড ছাড়া কাউকে অনুষ্ঠানে ঢুকতে দেয়া হবে না বলে জানানো হয়েছে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply