গাইবান্ধায় ভণ্ড কবিরাজের ৩ মাসের কারাদণ্ড

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : 

গাইবান্ধার সদরে জিন দ্বারা ও স্বপ্নে পাওয়া ঔষধে অপচিকিৎসা ও প্রতারণার দায়ে ভণ্ড কবিরাজ রাসেল মিয়াকে (২৩) তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বিকেলে সদর উপজেলার সহকারী কর্মকর্তা (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. আরিফ হোসেন এ আদেশ দেন। 

দণ্ডপ্রাপ্ত রাসেল মিয়া সদর উপজেলার ঘাগোয়া ইউনিয়নের ঘাগোয়া তালতলা গ্রামের রোস্তম আালীর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মো. শাহারিয়ার জানান, রাসেল মিয়া জিন দ্বারা ও স্বপ্নে পাওয়া ঔষধ দিয়ে নিজ বাড়িতে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত মানুষের চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। সপ্তাহে দুইদিন চিকিৎসা নিতে রাসেলের বাড়িতে ভিড় জমাতো বিভিন্ন এলাকার রোগীরা। নিজ বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরেই লাল কাপড়ে ঘেরা আস্তানায় বসে রোগীদে ঝাঁড়ফুক, পানি পড়া দিয়ে টাকা হাতিয়ে নিয়ে আসছিল ভণ্ড কবিরাজ রাসেল। রাসেলের বিরুদ্ধে অপচিকিৎসার অভিযোগ তোলেন ভুক্তভোগি ও স্থানীয়রা। বিষয় খতিয়ে দেখে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে দুপুরে অভিযান চালিয়ে নিজ আস্তানা থেকে তাকে আটক করা হয়। 

তিনি আরও জানান, আটক রাসেল মিয়াকে ভ্রাম্যমাণ আদালত হাজির করা হয়। এসময় রাসেল নিজেকে কবিরাজ দাবি করলেও ইউনিয়ন পরিষদের ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া চিকিৎসা সেবার কোন কাগজ দেখাতে পারেনি। পরে অপচিকিৎসা ও প্রতারণার দায়ে তাকে তিনমাসের কারাদণ্ড দেন বিরচারক। দণ্ডপ্রাপ্ত রাসেলকে শুক্রবার সকালে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে। 





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply