পুকুর থেকে হাত-পা বাঁধা নারীর মরদেহ উদ্ধার

|

গাজীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে পাকা খুঁটির সাথে হাত-পা বাঁধা এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার দিকে রাজাবাড়ি বাজার অগ্রণী ব্যাংকের পেছনের একটি পুকুর থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত সাবিনা আক্তার ময়মনসিংহ জেলার ধোবাউড়া উপজেলার জোঁকা গ্রামের লাল মিয়ার কন্যা।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জানান, স্থানীয় লোকজন বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে ওই পুকুরে নারীর ভাসমান মরদেহ দেখতে পায়। পুলিশ খবর পেয়ে নারীর মরদেহ উদ্ধার করে। রড সিমেন্টের পাকা খুটির সাথে নারীর হাত পা বেঁধে পুকুরে ফেলে রাখে।

নিহতের খালা ছোলেমা বেগম জানান, গত বছর তিনেক আগে গাজীপুর মহানগরের তেলিপাড়া এলাকার আক্তার হোসেনের ছেলে নাহিদের সাথে সাবিনা আক্তারের বিয়ে হয়। সাবিনা বছর তিনেক আগে গাজীপুর মহানগরের একটি তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিক ছিলেন। সেখান থেকে নাহিদ এর সাথে পরিচয় ও পরে বিয়ে হয়। এরপর থেকে নাহিদের পরিবার এ বিয়ে মেনে নেয়নি। পরে শারমিন শ্রীপুর উপজেলার ধলাদিয়া গ্রামের শারমিন টেক্সটাইল লিমিটেডে শ্রমিকের চাকরি নেয় ও সূর্য নারায়নপুর গ্রামের কামাল হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থাকে। বিবাহিত জীবনে তাদের দেড় বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

নিহতের খালা আরো জানান, সাবিনা আক্তার ২/৩ জন ছেলের সাথে প্রায়ই মুঠোফোনে কথা বলতো। মঙ্গলবার রাত ১১ টার দিকে ওই ছেলেদের একজন মোটরসাইকেলযোগে সাবিনা আক্তার কে তার ভাড়া বাসা থেকে উঠিয়ে নিয়ে যায়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ হয়। আজ বৃহস্পতিবার একটি পুকুরে তার মরদেহের খোঁজ পাওয়া যায়। নিখোঁজের ঘটনায় তারা কোন সাধারণ ডায়েরি করেনি।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ অপারেশন মোঃ আক্তার হোসেন জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।









Leave a reply