এরআগেও প্রকাশ্য কুপিয়েছিল বরগুনার সেই রিফাত!

|

বরগুনায় স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যাকারী রিফাত ফরাজি এর আগেও তার প্রতিবেশিকে কুপিয়ে আহত করেছে বলে জানা গেছে।

তাহিদুল ইসলাম তারিক নামের এক যুবক তার ফেসবুকে এই দাবি করেন।

জানা যায় গত ২০১৭ সালের ১৫ জুলাই সন্ধ্যায় বরগুনা ডি.কে.পি রোডের রিফাত ফরাজি, রিসান ফরাজি কুপিয়ে জখম করে তারিককে।

এদিকে এ ঘটনায় চন্দন নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চন্দন মামলার ৪ নম্বর আসামি। সকালে নিহতের বাবা সদর থানায় নয়নকে প্রধান আসামি করে ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

পরিবারের অভিযোগ, গতকাল রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে নয়ন ও তার সহযোগীরা। স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকাকে নিয়ে বরগুনা সরকারি কলেজ থেকে ফিরছিলেন রিফাত শরীফ। মূল ফটকে নয়ন, রিশান ফরাজী, রিফাত ফরাজী ও রাব্বি আকনসহ কয়েকজন রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা দৃর্বৃত্তদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু কিছুতেই হামলাকারীদের থামানো যায়নি। রিফাতকে উপর্যুপরি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে চলে যায় তারা। পরে স্থানীয়রা রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে মৃত্যু হয় তার।

নিহতের পরিবার জানায়, দুই মাস আগে রিফাতের সঙ্গে আয়েশার বিয়ে হয়। হামলাকারী নয়ন আয়েশার সাবেক স্বামী বলে দাবি করে আসছিল। রিফাতের সঙ্গে আয়েশার বিয়ে হলেও সে আয়েশাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ নিয়ে রিফাতের সাথে নয়নের বিরোধ চলছিল। ঘটনার পর থেকে পলাতক নয়ন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply