চুয়াডাঙ্গায় নিজ ঘরে ঘুমন্ত ব্যবসায়ীকে হত্যা

|

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় নিজ শয়ন কক্ষে এক ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। শনিবার ভোরে উপজেলার হারদী গ্রামে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত ওই ব্যবসায়ীর নাম আব্দুস সবুর। নিহত সবুর আগে বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থাকলেও বর্তমানে গরু মোটাতাজাকরন ও পান ব্যবসা করতেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, হারদী গ্রামের মৃত পরান মন্ডলের ছেলে আব্দুস সবুর শুক্রবার রাতে তার নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। রাত সাড়ে তিনটার দিকে অজ্ঞাত কয়েকজন দূর্বৃত্ত তার ঘরে প্রবেশ করে ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে হত্যা করে। এ সময় নিহতের চিৎকারে শুনে পরিবারের সদস্যরা বাইরে বের হয়ে সবুরের রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে।

খবর পেয়ে শনিবার সকালে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের স্বজনরা বলছেন, সবুরকে মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। তবে কারা এবং কি কারণে হত্যা করেছে এটি কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারছে না। এলাকার কারও সাথে তেমন কোন বিরোধ ছিলো না বলেও দাবি নিহতের পরিবারের।

নিহতের স্ত্রী সালমা বেগম জানান, প্রতিদিনের মত সবুর তার নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। পাশের রুমে সন্তানদের নিয়ে আমি ঘুমিয়ে ছিলাম। রাত আনুমানিক সাড়ে তিনটার দিকে সবুরের রুমে বিকট একটি শব্দ পেয়ে ঘরের বাইরে বের হয়ে দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে সে।

আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আসাুজ্জামান মুন্সি জানান, সবুরকে গুলি করে নয়, মাথায় লোহার কোন ভারি বস্তু দিয়ে আঘাত করে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। ময়না তদন্তের পরই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। তবে কারা এবং কি কারণে হত্যা করা হয়েছে তা নিশ্চিত হতে তদন্ত শুরু হয়েছে।









Leave a reply