বাঁচা-মরার লড়াইয়ে ২৩২ রানে গুটিয়ে গেল শ্রীলঙ্কা

|

সেমিফাইনালে যেতে হলে জয়ের বিকল্প নেই। এমন কঠিন সমীকরণের ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২৩২ রানের বেশি করতে পারেনি সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচে আড়াইশ রান করতে পারেনি লংকানরা।

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে সেমিফাইনালের পথে আরও একধাপ এগিয়ে যেতে চায় ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপের স্বাগতিকরা শুক্রবারের আগে পাঁচ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় পজিশনে আছে।

ইংল্যান্ডের বোলারদের তোপের মুখে পড়ে ৫০ ওভারে ২৩২ রান তুলতে সক্ষম হয় লংকানরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ১১৫ বলে ৮৫ রান করেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। এছাড়া ৪৯ ও ৪৬ রান করেন ফার্নান্দো ও মেন্ডিস।

শুক্রবার ইংল্যান্ডের হেডিংলি লিডসে বিশ্বকাপের ২৭তম ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় শ্রীলঙ্কা। দলীয় ২.২ ওভারে মাত্র ৩ রানে দুই ওপেনারের উইকেট হারায় লংকানরা।

তৃতীয় উইকেটে কুশল মেন্ডিসকে সঙ্গে নিয়ে ৫৯ রানের জুটি গড়েন অভিষেক ফার্নান্দো। ইংলিশ পেসারদের তোপের মুখে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেন তারা। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ফিফটির পথেই ছিলেন ফার্নান্দো।

কিন্তু মার্ক উডের বলে আদিল রশিদের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন তিনি। তার আগে ৩৯ বলে ৬টি চার ও দুটি ছক্কায় ৪৯ রান করেন অভিষেক ফার্নান্দো।

এরপর অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও কুশল মেন্ডিসের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে খেলায় ফিরে শ্রীলংকা। ইংলিশ পেসারদের চাপ এড়িয়ে অনবদ্য ব্যাটিং করেন তারা। তাদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে খেলায় ফিরে লংকানরা।

অনবদ্য ব্যাটিং করে যাওয়া কুশল মেন্ডিস ফিফটির ঠিক আগ মুহূর্তে গিয়ে হোচট খান। আদিল রশিদের বলে আউট হওয়ার আগে ৬৮ বলে ৪৬ রান করে ফেরেন মেন্ডিস। তার বিদায়ের পর আবারও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় শ্রীলংকা। পরপর দুই বলে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় লংকানরা।

এরপর ডি সিলভার সঙ্গে জুটি বেধে দলকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ৪৭ বলে ২৯ রান করে ফেরেন সিলভা। তার বিদায়ের পর মাত্র ২ রানে ফেরেন থিসেরা পেরেরা।

তবে অফ ফর্মে থেকে ছন্দে ফিরেছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। তার ব্যাটে বিপর্যয় এড়িয়ে খেলায় ফিরে শ্রীলঙ্কা। এবারের বিশ্বকাপের শুরু থেকেই অফ ফর্মে ছিলেন অ্যাঞ্জেলো। সবশেষ তিন ম্যাচে তার সংগ্রহ মাত্র ৯ রান। প্রথম দুই ম্যাচে ডাক পেয়েছেন তিনি।

তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শুক্রবার ছন্দে ফিরেছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক এই অধিনায়ক। তার ব্যাচে ভর করে ২৩২ রান তুলতে সক্ষম হয় লংকানরা। ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত খেলে ১১৫ বলে ৫টি চার ও একটি ছক্কায় সর্বোচ্চ ৮৫ রান করেন ম্যাথিউস।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply