গাজীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কারখানা শ্রমিকের মৃত্যু

|

গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুরের পূবাইল থানার মাঝুখানের কুদাব এলাকায় বুধবার দুপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে হেলাল উদ্দিন হাওলাদার (৩৮) নামে মৈত্রী কারখানার এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে । এদিকে লাশ গোপন করতে কারখানার মালিক আবুল হোসেন চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়েছে। টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ খবর পেয়ে স্থানীয় হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে পূবাইল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হেলাল উদ্দিন স্ত্রী ও স্কুল পড়ুয়া দুই কন্যা সন্তান নিয়ে মাঝুখানের কুদাব এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করার সুবাদে স্থানীয় আবুল হোসেনের মৈত্রী কারখানায় কাজ করতেন। গতকাল দুপুরে মালিকের নির্দেশে নিরাপত্তাহীন ভাবে রাখা বৈদ্যুতিক মটর চালু করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন হেলাল। কারখানার মালিক ও সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে টঙ্গীস্থ শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করে। পরে আবুল হোসেন ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য হেলাল হার্ট এট্যাকে আক্রান্ত হয়ে বিদ্যুতের তারের উপর পড়ে নিহত হয়েছে বলে প্রচার চালাতে থাকেন। টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে পূবাইল থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেছে।

স্থানীয়রা জানান, সরকারী নিয়ম বর্হিভূত পরিবেশ দূষনকারী আবুল হোসেনের মৈত্রী নামের কারখানাটিতে শ্রমিকদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায় এধরনের দূর্ঘটনা ঘটেছে। এলাকাবাসী অত্র এলাকা থেকে কারখানাটি দুরে সরিয়ে নেয়া এবং বিদ্যুৎ স্পর্শে নিহতের ঘটনাটির সুষ্ট তদন্ত পূর্বক ন্যায় বিচার দাবী করেন।

এদিকে হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার জানান, হেলাল বিদ্যুৎ স্পর্শে হয়ে মারা গেছে। অন্য কোন কারণ পাওয়া যায়নি নিহত হেলাল বরগুনা জেলা আমতলী থানার আঙ্গুল কাটা গ্রামের রুস্তম আলী হাওলাদারের ছেলে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply