লিটনের ইনিংসটা বাঁধিয়ে রাখার মতো: সাকিব

|

ক্যারিবীয়দের বিরুদ্ধে ম্যাচের এক পর্যায়ে বিপর্যয়ের মুখে পড়ে টাইগাররা। ১৩৩ রানে সৌম্য, তামিম ও মুশফিকের মতো তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। সেই চাপ দারুণভাবে সামলেছেন সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস। এই দুজনের রেকর্ড ১৮৯ রানের জুটি জয়ের বন্দরে নিয়ে যায় টাইগারদের। বিশেষ করে সাকিবকে চাপমুক্ত হয়ে খেলতে সহায়তা করেছেন লিটন।

৬৯ বলে ৮ চার ও ৪ ছক্কায় অপরাজিত ৯৪ রানের ইনিংসটি সাজান তিনি। সাকিবকে সঙ্গে নিয়ে তার এমন ব্যাটিংয়ে ভর করেই ৫১ বল আগে থাকতে ৩২২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছায় বাংলাদেশ।

সাধারণত উদ্বোধনী খেলে অভ্যস্ত লিটন। কিন্তু এবারই প্রথম ৫ নম্বরে খেললেন তিনি। এদিন সাকিবের সঙ্গে চতুর্থ উইকেটে রেকর্ড ১৮৯ রানের জুটি গড়েন তিনি। খুব কাছ থেকে লিটনের ব্যাটিং দেখেছেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাকিব লিটনে ৯৪ রানের অনবদ্য ইনিংসের প্রশংসা করেন। বলেন লিটনের ইনিংসা ছিল চোখ ধাঁধানো, এক কথায় বাধিয়ে রাখার মত।

সাকিব ১২৪ রানের ঝলমলে একটি ইনিংস উপহার দেন। শুধু রানই করেননি। বিশ্ব আসরে নতুন একজনকে যোগ্য সমর্থন দেন। নন-স্ট্রাইকিং প্রান্ত থেকে মুগ্ধ চোখে লিটনের নান্দনিক ব্যাটিং উপভোগ করেন। প্রয়োজন হলেই পরামর্শ দিয়েছেন। সেই অনুযায়ী ব্যাট চালান লিটন।

তাই ম্যাচ শেষে লিটনের প্রশংসা না করে পারলেন না সাকিব। ‘উইকেট খুব সহজ ছিল। আমি ওকে বলেছিলাম, যদি উইকেটে থাকতে পারিস, তাহলে খেলাটা শেষ করা যাবে। প্রথম ১০, ১৫ বল পর যেভাবে সে (লিটন) ব্যাট করেছে, তা ছিল চোখ ধাঁধানো। অপরপ্রান্ত থেকে আমি তার ব্যাটিং উপভোগ করেছি।’

৩২২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে রান রেটের দিকেও লক্ষ্য রাখতে হয় বাংলাদেশকে। এমন অবস্থাতে মূলত লিটনের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের কারণেই চাপমুক্ত হয়ে নিজের ইনিংস বড় করতে পেরেছেন সাকিব। অধিনায়ক মাশরাফির কণ্ঠেও লিটন বন্দনা ছিল গতরাতে।









Leave a reply