প্রশাসনের গাফিলতির কারণেই সাবেক মিসরীয় প্রেসিডেন্ট মুরসির মৃত্যু

|

প্রশাসনের গাফিলতির কারণেই মৃত্যু হয়েছে মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির। এমন অভিযোগ করেছে মুসলিম ব্রাদারহুড। সংগঠনটির দাবি- দীর্ঘদিন ধরেই উচ্চ রক্তচাপসহ গুরুতর স্বাস্থ্যজনিত জটিলতায় ভুগলেও যথাযথ ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

জর্ডানে মুসলিম ব্রাদারহুডের রাজনৈতিক শাখা ইসলামিক অ্যাকশন ফ্রন্টের দাবি, কারাগারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিকার মুরসি। শোক ও মিশরীয় জনগণের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান। মুরসিকে শহীদ বলেও আখ্যা দিয়েছেন তিনি।

সূত্র জানায়, ৬৭ বছর বয়সী এ রাজনীতিবীদ তার বিরুদ্ধে চলা এক শুনানি চলাকালীন সময়ে আদালত প্রাঙ্গণে মৃত্যুবরণ করেন।

এর আগে তিনি অবৈধভাবে ক্ষমতাদখলকারী স্বৈরশাসক জেনারেল সিসির নিয়ন্ত্রিত আদালতের রায়ে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত ছিলেন। কারান্তরীণ এই রাজনীতিবীদ সামরিক সরকারের দায়ের করা বেশ কয়েকটি মামলার আসামিও ছিলেন।

মোহাম্মদ মুরসি ছিলেন মিশরের সর্বপ্রথম গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট। রাজনৈতিক জীবনে তিনি মিশরের ইসলামপন্থী দল মুসলিম ব্রাদরহুডের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। ২০১৩ সালে মিশরীয় সেনাপ্রধান জেনারেল আব্দুল ফাত্তাহ আল সিসির নেতৃত্বে এক অবৈধ সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে তাকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply