ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকা ডুবির ঘটনায় নারীর লাশ উদ্ধার

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
গাইবান্ধার ফুলছড়িতে ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে ময়না বেগম (২৩) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। এছাড়া এ ঘটনায় রুপবান বেগম নামে অপর এক নারী নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজ নারীকে উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছেন স্থানীয়রা।

রবিবার (১৬ জুন) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে ফুলছড়ির ফজলুপুর ইউনিয়নের ব্রক্ষপুত্র নদের উজালডাঙ্গার পূর্বপাশের এলাকায় নৌকা ডুবির এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, ১০-১২ জন যাত্রী নিয়ে বালাসিঘাট থেকে উজালডাঙ্গা মানিককোড় চর এলাকায় যাচ্ছিলো শ্যালোইঞ্জিন চালিত একটি নৌকা। নৌকাটি ব্রহ্মপুত্র নদের উজালডাঙার পুর্বপাশে পৌঁছিলে তীব্র স্রোতের সঙ্গে ঢেউয়ের ধাক্কায় হঠাৎ করে নৌকার তলা ফেটে যায়। এতে নৌকাটি ডুবে গেলে যাত্রীরা সাঁতার কেটে তীরে ফিরে আসলেও ময়না বেগম নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। এছাড়া এসময় রুপবানু বেগম নামে অপর এক নারী নদের পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন।

ফজলুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্য আমিনুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নৌকা ডুবির ঘটনায় ময়না বেগম নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হলেও নিখোঁজ হয় রুপবান বেগম নামে অপর এক নারী। নিখোঁজের পর থেকে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছেন। তবে সন্ধ্যা সোয়া ৭টা পর্যন্ত নিখোঁজ নারীর কোন সন্ধান মেলেনি।

নিহত ময়না বেগম ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়নের মানিককোড় গ্রামের ফয়জুল মিয়ার স্ত্রী। এছাড়া নিখোঁজ রুপবানু বেগম (৩৩) একই গ্রামের মালেক মিয়ার স্ত্রী।

নৌকার মালিক জাহাঙ্গীর মিয়ার দাবি, তার নৌকাটি ভালোই ছিলো। নৌকা ছেড়ে দেয়ার আগেও শ্যালোইঞ্জিন এবং নৌকা ঠিক আছে কিনা দেখে নিয়েছেন। কিন্তু তীব্র স্রোত আর ঢেউয়ের ধাক্কায় হঠাৎ করে নৌকার তলা ফেটে যাওয়ায় হতাহতের ঘটনা ঘটে।

এদিকে, নৌকা ডুবির ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ। এসময় তিনি হতাহত পরিবারের খোঁজ খবর নেয় এবং নিহত দুই নারীর স্বামীকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করেন। নিহতের দুই পরিবারকে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।









Leave a reply