ফেসবুকে অন্তর্বাস পরিহিত ছবি পোস্ট করে ডাক্তারি লাইসেন্স হারালেন!

|

ছিলেন চিকিৎসক। মাথায় চাপল মডেলিং। এর পরই ফেসবুকে একের পর এক অন্তর্বাস পরিহিত ছবি পোস্ট। যার জেরে ডাক্তারির লাইসেন্স হারাতে হল মায়ানমারের নাং মিউ সানকে।

২৯ বছরের সান গত পাঁচ বছর ধরে মেডিক্যাল প্র্যাকটিশনার, গত ২০১৭ সাল থেকে তিনি মডেলিংয়ের সঙ্গে যুক্ত হন।

সরকারি ভাবে ডাক্তারি লাইসেন্স বাতিলের পরই শনিবার আদালতে যাওয়ার হুমকি দিয়েছেন সান। তিনি বলেছেন, দেশের মেডিক্যাল কাউন্সিলের সিদ্ধান্তে তাঁর ব্যক্তিস্বাধানতায় “হস্তক্ষেপ” করা হয়েছে।

মায়ানমারের সোশ্যাল মিডিয়ার বড়োসড়ো মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করে নিয়মিত আপডেট দিতেন ওই চিকিৎসক। কখনও অন্তর্বাস পরে, কখনও সুইমসুট পরে আবার কখনো আমেরিকার মডেল কেন্ডাল জেনারকেও নকল করতেন।

এর পরই যৌনতা ছড়ানোর অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। গত ৩ জুন তাঁর বিরুদ্ধে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে মায়ানমারের মেডিক্যাল কাউন্সিল। সেখানে দাবি করা হয়, “তাঁর পোশাকের ধরন মায়ানমারের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতির পরিপন্থী”। তবে এর আগে গত জানুয়ারিতেও তাঁকে এ বিষয়ে সতর্ক করে দেয় কাউন্সিল।

নিজের বক্তব্যে সান জানিয়েছেন, “আমি রোগী দেখার সময় এ ধরনের পোশাক মোটেই পরি না। কাউন্সিলের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এক মাসের মধ্যেই আমি আদালতে আবেদন করব। আমি ভাবতেই পারি না, কারও ব্যক্তিগত জীবনে এ ভাবে হস্তক্ষেপ করা যায়”।

তবে ডাক্তারি লাইসেন্স ফেরত পাওয়ার ব্যাপারে এখনও আশাবাদী তিনি।









Leave a reply