বাজেট কমেছে যুব ও ক্রীড়া খাতে

|

প্রতি বছরই বাজেটের আকার বাড়ছে, অথচ এবার ক্রীড়া খাতে বাজেট কমে গেছে। গত অর্থবছরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের বাজেট ছিল ১ হাজার ৪৯৮কোটি টাকা।

মন্ত্রণালয় পরিচালন ও উন্নয়ন ব্যয় মিলিয়ে সর্বমোট ১৪৮৯ কোটি ১২ লাখ টাকার বাজেট প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

এর মধ্যে উন্নয়ন খাতে ২১৪ কোটি ১৫ লাখ টাকা এবং পরিচালন খাতে ১২৭৪ কোটি ৯৭ লাখ টাকা ধরা হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেট ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেটের তুলনায় ৩০ কোটি ১০ লাখ ১৭ হাজার টাকা কম।

ফুটবল উন্নয়নের জন্য ২০ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্দের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এই টাকা জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের মাধ্যমে ফুটবলের উন্নয়নে খরচ করা হবে।

বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী তার বাজেটের লিখিত বক্তৃতায় উল্লেখ করা হয়, ‘দেশব্যাপী ক্রীড়া ও সংস্কৃতির অবকাঠামো উন্নয়ন এবং জাতীয় ও জেলা পর্যায়ে বিভিন্ন প্রকার প্রতিযোগিতা এবং অনুষ্ঠান আয়োজনে সরকার অবদান রেখে চলছে। বিভিন্ন খেলায় প্রতিভাবান খেলোয়াড় খুঁজে তাদের দীর্ঘমেয়াদি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।’

খেলার প্রস্তাবিত মোট বাজেট কমলেও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজনে বাজেট দ্বিগুণ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

চলতি অর্থ বছরে ছিল ১৫ কোটি টাকা। তা বেড়ে দ্বিগুণ বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণে ১৬ কোটি থেকে বাড়িয়ে ২৫ কোটি, বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের জন্য ১৫ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ২২ কোটি টাকা এবং ক্রীড়া পরিদপ্তরের ৩৩ কোটি থেকে বাড়িয়ে ৪০ কোটি বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।









Leave a reply