নরসিংদীতে ছাত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিলো দুর্বৃত্তরা

|

নরসিংদীতে ফুলন রানী বর্মণ নামে এক তরুণীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। তাঁর শরীরের ২০ ভাগ পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। গুরুতর অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে নরসিংদী পৌর এলাকার বীরপুর মহল্লায় এ ঘটনা ঘটেছে। দগ্ধ ফুলন বর্মণ বীরপুর মহল্লার যুগেন্দ্র বর্মণের মেয়ে ও নরসিংদীর উদয়ন কলেজের ছাত্রী।

দগ্ধ কলেজছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা জানায়, বাড়ির পাশের একটি দোকান থেকে মোবাইল রিচার্জ শেষে বাসায় ফিরছিল ফুলন। হঠাৎ অজ্ঞাতনামা দু’জন দুর্বৃত্ত তার হাত মুখ চেপে ধরে। শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ফুলনের চিৎকারে স্থানীয়রা গিয়ে উদ্ধার করে প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। উন্নত চিকিৎসার জন্য পরে তাকে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

কারা ফুলনের গায়ে আগুন দিয়েছে, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নয় পুলিশ। দগ্ধ ফুলন বর্মণ নরসিংদীর উদয়ন কলেজ থেকে গত বছর এইচএসসি’তে উত্তীর্ণ হয়ে কোথাও ভর্তি হয়নি।









Leave a reply