অভিজাত রেস্তোরাঁয় বিস্ফোরণ, উড়ে গেছে দরজা-জানালা

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুরে একটি অভিজাত রেস্তোরাঁয় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওই রেস্তোরাঁর দোতলা ও তিন তলার ৪১টি জানালার কাচ ভেঙ্গে গেছে। এছাড়া রেস্তোরাঁর ভিতরের পাঁচটি কাঠের দরজা বিধ্বস্ত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে শহরের চর কমলাপুর এলাকায় খান বাহাদুর ইসমাইল হোসেন সড়কে অবস্থিত মসজিদে আবু বক্কর (রা.) নামের একটি মসজিদ সংলগ্ন সেরেনি গার্ডেন নামের ওই অভিজাত রেস্তোরাঁয় এ ঘটনা ঘটে।

ওই এলাকার বাসিন্দা শেখ জাফর বলেন, সকাল সোয়া ৮টার দিকে বিপুল শব্দের বিস্ফোরণ শুনে তিনি ঘরের বাইরে চলে আসেন। বাইরে এসে দেখতে পান ওই রেস্তোরাঁর জানালার কাচগুলি ভেঙ্গে টুকরো টুকরো হয়ে সামনের সড়কসহ আশেপাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই এলাকার এক বাসিন্দা জানান, বিস্ফোরণের ফলে জানালার কাচ ভেঙ্গে অন্তত ৪০ থেকে ৫০ ফুট দূরে গিয়ে পড়ে। তিনি বলেন, ওই জানালার ভাঙ্গা কাচগুলি সামনের সড়কের উপরে এসে পড়ায় ওই সময় সড়ক দিয়ে চলাচলকারী একটি রিক্সার চালাক ও ওই রিক্সার এক যাত্রী আহত হন। তারা ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। তিনি জানান, ঘটনা সকালে না হয়ে অন্য কোন সময়ে হলে বড় ধরনের হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারতো।

বিস্ফোরণের ফলে ওই মসজিদের দোতলার ২৫টি কাঁচ ভেঙ্গে গেছে। এছাড়া তিন তলায় ১৬টি জানালার কাঁচ ভেঙ্গে টুকরো টুকরো হয়ে গেছে। এছাড়া দুই তলা মিলে মোট পাঁচটি কাঠের দরজা বিধ্বস্ত হয়েছে।

ওই রেস্তরার মালিক গোলাম তানভীর সুজন বলেন, রেস্তোরাঁটি কেন্দ্রীয়ভাবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। তিনি বলেন, প্রতিদিন বিকেল তিনটা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত এ রেস্তরাটি খোলা থাকে। এ রেস্তোরাঁয় মোট ১৮জন কর্মচারি কাজ করেন।

গোলাম তানভীর আরও বলেন, গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে ওইদিনের মত কাজ শেষ করে রেস্তোরাঁটি বন্ধ করে কর্মচারীরা বাড়ি চলে যান। সকালে তিনি বিস্ফোরণের খবর শুনে বাড়ি থেকে ঘটনাস্থলে এসে ধ্বংসযজ্ঞ দেখতে পান। তিনি বলেন, এতে তার চার লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তিনি বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারাণা করা যাচ্ছে গ্যাস জনিত চাপের কারনে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।









Leave a reply