বাংলাদেশের আজ আসল লড়াই শুরু

|

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের আসল লড়াই শুরু হচ্ছে আজ। তিন ম্যাচ খেলে ফেলার পর ‘নতুন শুরু’ শব্দযুগলে আপত্তি থাকতে পারে অনেকের। কিন্তু ব্রিস্টলে আজ শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটা বাংলাদেশের জন্য একরকম নতুন শুরুই। লিগ পর্বের প্রথম তিন ম্যাচে বাংলাদেশের চাওয়া ছিল অন্তত একটি জয়।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে প্রথম ম্যাচেই পূরণ হয়েছে সেই চাওয়া। পরের দুই ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের কাছে হারলেও তাই মোটা দাগে খুব বেশি হতাশ হওয়ার কিছু নেই মাশরাফিদের। প্রথম তিন ম্যাচের প্রতিপক্ষই শক্তি-সামর্থ্যে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশের চেয়ে। এবার ভিন্ন সমীকরণ, ভিন্ন চ্যালেঞ্জ।

শ্রীলংকার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরের দুই ম্যাচেও বাংলাদেশকে খেলতে হবে ফেভারিট হওয়ার চাপ নিয়ে। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ অভিযান ব্যর্থ হবে নাকি সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্ন উজ্জ্বল হবে, সেটি এই তিন ম্যাচেই নির্ধারিত হয়ে যাবে। আপাতত সেমির দৌড়ে টিকে থাকতে আজ শ্রীলংকার বিপক্ষে জয়ের কোনো বিকল্প নেই। ব্রিস্টলে আজ দু’দল যখন মাঠে নামবে, তাদের এক চোখ থাকবে ২২ গজে আরেক চোখ আকাশে। আজও বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

র‌্যাংকিংয়ে পিছিয়ে থাকা লংকানদের বিপক্ষে বাংলাদেশই ফেভারিট। কিন্তু সেই কাগুজে হিসাবকে বাস্তবে অনূদিত করার চ্যালেঞ্জটা মোটেও সহজ নয়। শ্রীলংকাও সম্ভাব্য জয়ের তালিকায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটিকে রেখেছে। সেভাবেই তারা প্রস্তুত হচ্ছে। নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের কাছে ১০৬ রানের বিশাল হারে একটু হলেও মাশরাফিদের আত্মবিশ্বাস নড়ে গেছে।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১০ উইকেটের শোচনীয় হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করা শ্রীলংকা দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে নাটকীয় জয়ে পেয়েছে অক্সিজেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটা বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় বোনাস হিসেবে পাওয়া এক পয়েন্টে আপাতত পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশের উপরে রয়েছে লংকানরা।

কিন্তু শক্তির বিচারে বাংলাদেশের ধারেকাছেও নেই তারা। শ্রীলংকার এই দলটি যেন অতীতের কংকাল। বিশেষ করে ব্যাটিংয়ে। ফল হওয়া দুই ম্যাচেই অলআউট হওয়া লংকানরা সাকুল্যে করেছে ৩৩৭ রান। দারুণ বোলিংয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে দলকে নাটকীয় জয় এনে দেয়া নুয়ান প্রদীপের চোট আরেকটি বড় ধাক্কা হয়ে এসেছে শ্রীলংকা শিবিরে। আঙুলের চোটে পড়ে আজ খেলা হচ্ছে না লংকান পেসারের।

শ্রীলংকার একাদশে তাই পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী। পরিবর্তন আসছে বাংলাদেশের একাদশেও। একই একাদশ নিয়ে আগের তিন ম্যাচ খেলা বাংলাদেশ দলে সম্ভবত দুটি পরিবর্তন হতে পারে। মিডলঅর্ডারে সময়ের দাবি মেটাতে না পারা মোহাম্মদ মিঠুনের জায়গায় আজ লিটন দাসের খেলা অনেকটা নিশ্চিত। আর বোলিংয়ে স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজের জায়গায় চতুর্থ পেসার হিসেবে খেলানো হতে পারে রুবেল হোসেনকে।

এমনিতে ব্রিস্টলের উইকেট ব্যাটিং সহায়ক। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরেই সেখানে বৃষ্টি হচ্ছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আজও প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে ব্রিস্টলে। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি না হলেও মেঘলা কন্ডিশনে পেসাররা বাড়তি সুবিধা পাবেন। সেটা মাথায় রেখেই রুবেলকে খেলানোর ভাবনা।

এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের বোলিং সবচেয়ে নির্বিষ মনে হয়েছে। অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা ও দলের মূল পেসার মোস্তাফিজুর রহমান প্রত্যাশার ছিটেফোঁটাও পূরণ করতে পারেননি। রুবেলের গতি তাই বাংলাদেশের বোলিংয়ে আনতে পারে বৈচিত্র্য।

ব্যাটিংয়েও আছে উদ্বেগের জায়গা। সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম ছাড়া কেউই ধারাবাহিক নন। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার প্রত্যাশিত জমাট শুরু এনে দিতে পারছেন না দলকে। দেশসেরা ব্যাটসম্যান তামিম প্রথম তিন ম্যাচে করেছেন যথাক্রমে ১৬, ২৪ ও ১৯ রান।

তার ফর্মে ফেরাটা জরুরি। নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচে এক সাকিবের আলো কাটাতে পারেনি সব আঁধার। তবে উত্তুঙ্গ ফর্মে থাকা সাকিবের হাতেই এখন স্বপ্নের মশাল। প্রথম দুই ম্যাচে ফিফটির পর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে করেছেন সেঞ্চুরি।

২৬০ রান করে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় আপাতত সবার উপরে সাকিব। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের চওড়া ব্যাটের দিকে আজও তাকিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। সাকিবকে নিয়ে উদ্বেগের খবর, তার পায়ে ব্যথা। আজকের ম্যাচে অনিশ্চিত তিনি।

শ্রীলংকার বিপক্ষে সাম্প্রতিক রেকর্ড দুর্দান্ত হলেও বিশ্বকাপে দু’দলের আগের তিন ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। ব্যাটে-বলে সাকিব জ্বলে উঠলে আজই ঘুচে যেতে পারে সেই আক্ষেপ। জ্বলে ওঠার জন্য দারুণ এক কীর্তির হাতছানিতে আরও অনুপ্রাণিত হবেন সাকিব।

তামিমের পর বাংলাদেশের মাত্র দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডেতে ছয় হাজার রানের মাইলফলক ছুঁতে মাত্র ২৩ রান দরকার তার।









Leave a reply