আজ কি মাশরাফী-তামিম জ্বলে উঠতে পারবেন?

|

বিশ্বকাপে তিন ম্যাচে মাশরাফীর উইকেট মাত্র একটি। দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচ মিলিয়ে বোলিং করেছেন মাত্র ১১ ওভার। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শুরুতে ভালো করলেও শেষদিকে খেই হারিয়ে ফেলেন। অজিত আগরকারের মতো সাবেকরা মনে করেন, একাদশে মাশরাফীর থাকা উচিত নয়। ব্যাটিংয়ে দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবালের তিন ম্যাচে রান ১৬, ২৪ ও ১৯। সর্বশেষ চার ম্যাচে তার কোনো হাফ সেঞ্চুরি নেই। ২০১৬ সালের পর এত লম্বা সময় কখনও হাফ সেঞ্চুরি ছাড়া থাকেননি তামিম। আজ প্রতিপক্ষ শ্রীলংকা হওয়ায় মাশরাফি ও তামিমের স্বরূপে ফেরার সুযোগ রয়েছে। শ্রীলংকাকে পেলেই যে তারা জ্বলে ওঠেন। দু’জনেরই লংকানদের বিপক্ষে পারফরম্যান্স ভালো।

তামিম ১১টি ওয়ানডে সেঞ্চুরির মধ্যে দুটি করেছেন শ্রীলংকার বিপক্ষে। চারটি হাফ সেঞ্চুরি। দু’দলের লড়াইয়ে সর্বোচ্চ রান করা প্রথম চার ব্যাটসম্যানই শ্রীলংকার। তবে পরের তিনটি নাম বাংলাদেশের- তামিম, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের। দু’দলের লড়াইয়ে এখন যারা বিশ্বকাপ দলে আছেন তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ রান তামিমের। ২১ ম্যাচে করেছেন ৬৪৫ রান। দুবাইয়ে গত বছর এশিয়া কাপে দুই রান করে আঙুলে চোট নিয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন তামিম। দলের প্রয়োজনে শেষদিকে এক হাতে ব্যাট করে চমক দেখিয়েছিলেন তিনি। শ্রীলংকা ম্যাচ হতে পারে তামিমের রানে ফেরার মঞ্চ।

দু’দলের লড়াইয়ে সর্বোচ্চ ৩১ উইকেট মুত্তিয়াহ মুরালিধরনের। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন মাশরাফী। ২২ ম্যাচে তিনি নিয়েছেন ২৬ উইকেট। বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ভালো বোলিং করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। বিশ্বকাপে এখনও নিজের সেরাটা দিতে পারেননি তিনি। ব্রিস্টলের উইকেট থেকে পেসাররা সহায়তা পেতে পারেন। মাশরাফির ফেরার সুযোগ রয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply