ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে জেলেদের বিক্ষোভ

|

সাগরে মাছ ধরা বন্ধে সরকার ঘোষিত ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন জেলেরা।

রোববার সকাল ১০টায় উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকায় ৪০ জেলে পল্লীর কয়েক হাজার জেলে মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে এ অবরোধ কর্মসূচি পালন করেন।

জানা যায়, জেলেরা টানা ২ ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। এতে মহাসড়কের দুপাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। যানজটে চরম দুর্ভোগে পড়েন দূর-দূরান্তের হাজারও যাত্রী।

উত্তর চট্টলা উপকূলীয় মৎসজীবী জলদাস সমবায় কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি লিটন দাস বলেন, জেলেরা এখন মহাজনদের কাছ থেকে চড়া সুদে দাদন নিয়ে ফিশিং বোট ও জাল মেরামত করে সাগরে যাওযার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় ঘোষণা দেয়া হয় ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ।

বিকল্প কোনো ব্যবস্থা না রেখে মাছ ধরা বন্ধ করায় চরম বিপাকে পড়েছেন এ পেশার সঙ্গে জড়িত চট্টগ্রামের প্রায় ৫০ হাজার জেলে পরিবার।

তিনি বলেন, সামনে ইলিশ ধরার মৌসুম। এ সময় ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ ঘোষণা করে লাখো জেলেকে বিপদে ফেলে দেয়া হয়েছে। তাই জেলেরা বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নেমেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিল্টন রায় জানান, সরকার ঘোষিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবিতে বিক্ষুব্ধ জেলেরা মহাসড়ক অবরোধ করেছিল। কিন্তু বৈঠকের মাধ্যমে বিষয়টি সুরাহা করার আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ তুলে নেয়। এতে আটকেপড়া যানবাহন চলাচল পুনরায় স্বাভাবিক হয়ে যায়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply