রোজা রেখে খেলেছেন মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ ও মিরাজ

|

বাংলাদেশ দল বিশ্বকাপের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার পরই রোজা শুরু হয়েছে। ৫ মে শুরু হয়েছিল আয়ারল্যান্ডে ছিল ত্রিদেশীয় সিরিজ। সিরিজ চলাকালীন সময়েই প্রথম ম্যাচেও রোজা রেখেছিলেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার।

গতকাল লন্ডনের দ্য ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেও রোজা রেখে খেলেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহীম এবং মেহেদী হাসান মিরাজ। তিনজনই অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছেন। কিন্তু ম্যাচে এই তিনজনের অবদান দেখে একবারও কী মনে হয়েছে তারা রোজা?

৭৮ রানের সর্বোচ্চ ইনিংসটি খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। শেষ মুহূর্তে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ৩৩ বলে অপরাজিত ৪৬ রানে স্কোরকার্ড ঠেকে ৩৩০- এ। আর নিয়ন্ত্রিত বোলিং করে নিজেকে আবারও প্রমাণ করলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

খেলা শেষে যখন সংবাদ মাধ্যমের সামনে হাজির হলেন মিরাজ তখন রোজা রেখে ম্যাচ জয়ের সেই গল্প অকপটে বলে গেলেন। জানিয়ে রাখলেন আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজটিও খেলেছিলেন রোজা রেখে।

আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানিয়ে মিরাজ বলেন, রোজা রেখে খেলা ভাগ্যের ব্যাপার। আল্লাহ আমাদের পুরোপুরি সমর্থন দিয়েছেন বলেই ম্যাচটা আমরা জিততে পেরেছি। শুধু আমি না, রিয়াদ ভাই, মুশফিক ভাই রোজা রেখে খেলেছেন।

তিনি জানান, নিয়্যত করেছিলাম রোজা রাখব। রিয়াদ ভাই ও মুশফিক ভাইও নিয়্যত করেছেন। আমি যখন নিয়্যত করেছি তখন আল্লাহর ওপর ছেড়ে দিয়েছি। আল্লাহর অশেষ রহমতে ম্যাচটি জিতেছি।

সংবাদ সম্মেলনে এসে মাশরাফি বিন মর্তুজা নিজেই জানালেন বাংলাদেশ দলের এই তিন ক্রিকেটারের রোজা রেখে খেলার কথা।









Leave a reply