দারুণ শুরুর পর তামিমকে হারালো টাইগাররা

|

শুরুটা দারুণই হয়েছে। দেখে শুনে খেলে ওপেনিং জুটিতে ৬০ রান উঠিয়েছিলেন তামিম-সৌম্য। তবে অষ্টম ওভারে উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন অনুশীলনে চোট পাওয়া তামিম। এরপর মাঠে নেমেছেন সাকিব আল হাসান। সৌম্য ৩৪ বলে ৪০ রান নিয়ে ব্যাট করছেন।

এর আগে টস জিতে প্রথমে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসিস।

চোট শঙ্কা পেছনে ফেলে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলছেন পেস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। অনুশীলনে হাতে চোট পাওয়া তামিম ইকবালও আছেন। বোলিং সামর্থ্য বিবেচনায় একাদশে সুযোগ পেয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন। ছিটকে পড়েছেন হার্ডহিটার সাব্বির রহমান।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলে নেই পেসার হাশিম আমলা। একাদশে ঢুকেছেন ক্রিস মরিস। ইনজুরির কারণে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ছিলেন না ডেল স্টেইন। এ ম্যাচেও নেই তিনি।

ওয়ানডে ক্রিকেটে এ দুদল একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে ২০ বার। ১৭টিতে জয় পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ ৩টিতে। টাইগারদের এ ৩ জয়ের ১টি এসেছে ২০০৭ বিশ্বকাপে। বাকি দুটি ২০১৫ সালের দ্বিপক্ষীয় সিরিজে।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক) ও মোস্তাফিজুর রহমান।

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ: কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), এইডেন মার্করাম, রসি ভ্যান ডার ডুসেন, ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), জেপি ডুমিনি, ডেভিড মিলার, ক্রিস মরিস, আন্দিলে ফিকোয়াও, কাগিসো রাবাদা, লুঙ্গি এনগিদি ও ইমরান তাহির।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply