ওসব ভেবে লাভ নেই: পাক অধিনায়ক

|

সবশেষ ১০ ওয়ানডেতে হেরেছে পাকিস্তান। আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচেও হোঁচট খেয়েছেন সরফরাজরা। সব মিলিয়ে কোণঠাসা তারা। এমতাবস্থায় বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলতে নামছে পাকিস্তান। শুক্রবার বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় নটিংহ্যামের ট্রেন্টব্রিজে হবে এ দুদলের লড়াই।

ব্যাটিং শক্তিতে বলীয়ান উইন্ডিজের বিপক্ষে নামার আগে পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ বলেন, আমাদের প্রেরণা ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। তখনও আমাদের অবস্থা বেশ খারাপ ছিল। টুর্নামেন্টের আগে ক্রমাগত হারছিলাম।

দুই বছর আগে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত সবশেষ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান। র‌্যাংকিংয়ে অষ্টম দল হিসেবে ওই আসরে খেলতে নামে আনপ্রেডিক্টেবল দলটি।

ওই টুর্নামেন্টের আগে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৪-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হারে পাকিস্তান। এর পর আসরের প্রথম ম্যাচেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে ১২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত হয় সরফরাজের দল। কিন্তু এর পরও দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় পাকিস্তান। প্রথম রাউন্ডে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলংকা, সেমিফাইনালে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান।

এবারও সেই অবস্থা। বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার কাছে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ধবলধোলাই হয়েছে পাকিস্তান। তবু ট্রফি জয়ের নেশায় বেশ আগভাগেই ইংল্যান্ডে পা রেখেছেন সরফরাজরা। কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে স্বাগতিকদের সঙ্গে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ খেলেছেন তারা। সবকটিতেই হেরেছে পাকিস্তান (বৃষ্টিতে একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়)। তবে ওসব নিয়ে ভাবছেন না সরফরাজ।

তিনি বলেন, আগে কী হয়েছে, সেসব ভেবে লাভ নেই। ওসব মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলেছেন ছেলেরা। নবোদ্যমে মাঠে নামবেন তারা। ইংল্যান্ডে আমরা প্রায় এক মাস ধরে আছি। আমাদের প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। আশা করি, পাকিস্তানের কাছ থেকে ভালো ক্রিকেট দেখতে পাবেন।

প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাটিংটা ভালোই হয়েছে পাকিস্তানের। ৪ ওয়ানডের ৩টিতে ৩০০’র চেয়ে বেশি দলীয় স্কোর করেন ব্যাটসম্যানরা। সেঞ্চুরি হাঁকান বাবর আজম, ইমাম-উল-হক। টপঅর্ডার ও মিডঅর্ডারের অন্য ব্যাটসম্যানরাও রান পেয়েছেন। সেটাই আশা জাগাচ্ছে সরফরাজকে। তিনি মনে করেন, ব্যাটসম্যানরা নিজেদের স্বভাবসুলভ খেলাটা খেলতে পারলে ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে বড় স্কোর গড়া সম্ভব।









Leave a reply