টাঙ্গাইলে ডাক্তারের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ, স্বজনদের মারপিট করেছে ডাক্তাররা

|

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসায় অবহেলার কারণে এক রোগী মারা যাবার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মৃত্যুর এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় নিহতের স্ত্রীসহ স্বজনদের বেদম মারপিট করেছে হাসপাতালের কর্মচারী ও ইন্টার্র্নি ডাক্তাররা।

পরে এ ঘটনার প্রতিবাদে এলাকাবাসী ও স্বজনরা লাশ নিয়ে শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে। বৃহস্পতিবার রাত দশটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

রোগীর স্বজনরা জানায়, বিকেলে টাঙ্গাইল পৌর এলাকার পশ্চিম আকুর টাকুর পাড়ার মুকুল মিয়াকে শ্বাসকষ্ট জনিত রোগে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রোগীর অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করে। এসময় স্বজনরা বারবার রোগীকে অক্সিজেন দিতে অনুরোধ করে। কিন্তু ডাক্তাররা অক্সিজেন দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এর কিছুক্ষণ পরেই রোগীর মৃত্যু হয়। রোগীর স্বজনরা হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে হাসপাতালের জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. সজিবসহ ২০/২৫জন ইন্টার্র্নি শিক্ষার্থীরা রোগীর স্বজনদের মারপিট শুরু করে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগে তাদেরকে আটক করে রাখে। এছাড়াও নিহতের স্ত্রী হাসিনা বেগম ও ছেলে মাসুমকে বেদম পিটিয়ে রক্তাক্ত করে।

এসময় বিভিন্ন মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা ভিডিও ধারণ করতে গেলে তাদের উপরেও চড়াও হয় ইন্টার্র্নি ডাক্তার ও কর্মচারীরা। পরে পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে নিহত স্বজনদের উদ্ধার করে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এলাকাবাসী ও রোগীর স্বজনরা এ ঘটনার বিচার দাবিতে হাসপাতাল থেকে লাশ নিয়ে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ করে সড়ক অবরোধ করে রাখে।









Leave a reply