টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

|

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মোহাম্মদ হানিফ (৩৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, নিহত হানিফ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র মামলাসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। মোহাম্মদ হানিফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের নাটমুরাপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

বুধবার গভীর রাতে সদর ইউনিয়নের লম্বরী মেরিন ড্রাইভ এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, একটি মামলায় বুধবার সকালে বিশেষ অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী হানিফকে আটক করে পুলিশ। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী, গভীর রাতে তাকে সঙ্গে নিয়ে সদর ইউনিয়নের মেরিন ড্রাইভ এলাকায় মাদক ও অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হানিফের সহযোগীরা তাদের ওপর গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় হানিফ গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক হানিফকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল তল্লাশি করে অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ সময় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন। তারা হলেন- কনস্টেবল আবদুর শুক্কুর, মংথিন প্রো, জুয়েল বড়ুয়া। আহত তিন পুলিশ সদস্য হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানান ওসি।









Leave a reply