ফের বোলিংয়ে নিষিদ্ধ হলেন মোহাম্মদ হাফিজ

|

অবৈধ অ্যাকশন প্রমাণিত হওয়ায় পাকিস্তানি অলরাউন্ডার মোহাম্মাদ হাফিজকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবারও বোলিং থেকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার বিশেষজ্ঞ কমিটি হাফিজের বোলিংয়ে অবৈধ অ্যাকশনের প্রমাণ পাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয়।

আজ বৃহস্পতিবার এইসিসির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বেশিরভাগ বল ছোঁড়ে মারার সময় হাফিজের হাত ১৫ ডিগ্রির বেশি অ্যাঙ্গেলে বাঁকা হওয়ার প্রমাণ পেয়েছে বিশেষজ্ঞ কমিটি। এর ভিত্তিতেই তার বোলিং নিষিদ্ধ করা হলো, এবং তা ঘোষণার সাথে সাথেই কার্যকর হবে।

আইসিসির ঘোষণায় আরও বলা হয়, তবে নিজের বোলিং অ্যাকশন সংশোধন করে বিশেষজ্ঞ কমিটির সিদ্ধান্ত পূনর্মূল্যায়নের আবেদন করতে পারবেন হাফিজ।

তিন বছরে তৃতীয়বারের মতো পাকিস্তানি এই অলরাউন্ডারের বোলিং অ্যাকশন অবৈধ বলে ঘোষণা করলো। আগের দুই বার নিজেকে নির্দোষ প্রমাণিত করতে পেরেছিলেন তিনি।

গত মাসে আবুধাবিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ শেষে ম্যাচ কর্মকর্তারা হাফিজের বিরুদ্ধে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ আনেন।

চলতি বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের মাধ্যমে বোলিং নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরেন হাফিজ। ২০১৪ সালের নভেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে হাফিজের বিরুদ্ধে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ আনা হয়েছিল। এরপর পরীক্ষা দিয়ে তিনি পার পেতে পারেননি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার বোলিং নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

নিয়ম অনুযায়ী বোলিং অ্যাকশন শুধরে আবার পরীক্ষা দিয়ে ২০১৫ সালের এপ্রিলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলিং শুরু করেন হাফিজ। কিন্তু ওই বছরের জুনে গলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচের তার বিরুদ্ধে আবারও অভিযোগ আনা হয়। ২৪ মাসের মধ্যে আবারও তার বোলিং অ্যাকশন অবৈধ প্রমাণিত হওয়ায় তিনি নিয়ম অনুযায়ী ১২ মাসের জন্য বোলিং থেকে নিষিদ্ধ হন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply