বরগুনায় ৫ মণ হরিণের মাংস জব্দ

|

বরগুনা প্রতিনিধিঃ

বরগুনার পাথরঘাটায় যৌথ অভিযান চালিয়ে মাথা ও চামড়াসহ ৫ মণ হরিণের মাংস জব্দ করেছে পুলিশ ও বন বিভাগ। এসময় একটি ট্রলারসহ দুই বস্তা হরিণ শিকারের কাজে ব্যবহৃত ফাঁদ জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

বন বিভাগের পদ্মা এলাকার বিট কর্মকর্তা বদিউজ্জামান সোহাগ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার ভোররাতে পুলিশের সহযোগিতায় বনফুল গুচ্ছগ্রাম এলাকায় অভিযান চালায় বন বিভাগ। এসময় গুচ্ছগ্রামের একটি খালের ভেতরে থাকা নাম বিহীন একটি ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে তল্লাশী চালিয়ে দুটি হরিণের চামড়া ও মাথা, ৫ মণ হরিণের মাংস, দুই বস্তা হরিণ শিকারের ফাঁদ সহ একটি ট্রলার জব্দ করা হয়।

জব্দ করা মাংসগুলো অন্তত ৮টি হরিণের বলে ধারণা করছে বন বিভাগ।

স্থানীয়রা জানান, মাংস সহ জব্দ হওয়া ট্রলারটির মালিকের নাম আব্দুর রহমান সিকদার। তার ছেলে আল ইব্রাহিম সিকদার পাথরঘাটা কোস্টগার্ডের ট্রলার চালক হিসেবে পরিচিত। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে পিতা-পুত্র দীর্ঘদিন ধরে হরিণ শিকার করে মাংস বিক্রি করে আসছিলো। এ বিষয়ে তাদের সাথে কথা বলতে চাইলেও খুঁজে পাওয়া যায় নি।

কোস্টগার্ডের পাথরঘাটা স্টেশনের সাব লে. জহিরুল ইসলাম ইব্রাহিমকে নিরপরাধ দাবি করে বলেন, ইব্রাহিম আমাদের ট্রলার চালক হিসাবে কাজ করেন। তার মধ্যে কোন অপরাধ পাওয়া যায়নি। তবে, তার বাবা অপরাধের সাথে জড়িত বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে পাথরঘাটা বন কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, জব্দ করা মাংস উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সামনে কেরসিন দিয়ে মাটিতে পুতে ফেলা হবে।

যমুনা অনলাইন: আরএস









Leave a reply