পূরণ হয়নি সরকারি হজযাত্রীর কোটা, নিবন্ধন ২০ মে পর্যন্ত

|

২০১৯ সালের সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের কোটা এখনও খালি রয়েছে। নির্ধারিত সময়ে কোটা পূরণ না হওয়ায় আবারও নিবন্ধনের সময় বাড়িয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এতে পবিত্র হজে যেতে আগ্রহী ব্যক্তিদের নিবন্ধনের আহ্বান জানানো হয়েছে।

বুধবার সরকারের এক তথ্য বিবরণীতে বলা হয়, আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতে প্রাক নিবন্ধনের ভিত্তিতে প্রি-রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম এখনও চলছে। যারা প্রাক নিবন্ধন করেছেন, কিন্তু বেসরকারি এজেন্সির কোটা পূর্ণ হওয়ায় হজে যেতে পারছেন না, এমন আগ্রহী ব্যক্তির কোটা খালি সাপেক্ষে আগে ২০ মের মধ্যে প্রাকনিবন্ধন ও নিবন্ধন করার জন্য ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

তথ্য বিবরণীতে বলা হয়, এ বছর পবিত্র হজ পালনে আগ্রহী ব্যক্তিদের অবগতির জন্য ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে গমনের কোটা এখনও খালি রয়েছে। যারা এর মধ্যে বেসরকারি এজেন্সির মাধ্যমে প্রাকনিবন্ধন করেছেন, কিন্তু বেসরকারি এজেন্সির কোটা পূর্ণ হওয়ায় হজে যেতে পারছেন না, সেসব আগ্রহী ব্যক্তিকে কোটা খালি সাপেক্ষে আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাওয়ার সুযোগ দেয়া হবে।

এ জন্য ২০ মের মধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, নিকটস্থ ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয়, ঢাকার আশকোনা হজ অফিস এবং ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে যোগাযোগ করে প্রাক নিবন্ধন ও নিবন্ধন করার জন্য ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, নির্ধারিত সময়ে কোটা পূরণ না হওয়ায় এর আগেও একবার নিবন্ধনের সময় বাড়িয়েছিল ধর্ম মন্ত্রণালয়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply