শালিস চলাকালীন ভাতিজার লাঠির আঘাতে চাচা নিহত

|

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় ভাতিজার লাঠির আঘাতে চাচা ফজলু চৌকাদার (৪৫) নিহত হয়েছেন। সোমবার (২৯ এপ্রিল) রাত ১১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে সোমবার বিকালে উপজেলার কৈখালি ইউনিয়নের পশ্চিম পরাণপুর গ্রামে শালিসি বৈঠকে ফজলু চৌকিদারকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে তার ভাতিজা জোবায়ের।

ফজুল চৌকিদার ওই গ্রামের মৃত আতিয়ার চৌকিদারের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য পবিত্র মন্ডল জানান, জমিজমা নিয়ে ফজলু চৌকিদারের সাথে তার আপন বড় ভাই মজিদ চৌকিদারের বিরোধ ছিল। সোমবার বিকালে উভয়পক্ষকে নিয়ে বিরোধ নিরসনে তিনিসহ ৮নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বর আজিজুল ইসলাম ও ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি কেরামত আলীসহ স্থানীয়দের উপস্থিতিতে শালিস বসে। শালিসের শেষের দিকে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ফজলুর উপর হামলা চালায় তার বড় ভাই মজিদ চৌকিদার, তার স্ত্রী ছফিরন ও ছেলে জোবায়ের চৌকিদার। এ সময় জোবেয়ার মেহগনি গাছের ডাল দিয়ে তার চাচা ফজলুর মাথায় ও ঘাড়ে আঘাত করে। এতে ফজলু চৌকিদার অজ্ঞান হয়ে পড়ে গেলে পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে ভর্তি না নিয়ে তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে সদর হাসপাতাল থেকে রেফার্ড করলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply