নিষিদ্ধ হল ‘মুখঢাকা পোশাক’: কী বলছেন শ্রীলঙ্কানরা?

|

সন্ত্রাসবাদী হামলার জেরে শ্রীলঙ্কায় জনসমক্ষে যে কোনও রকম মুখ ঢাকা পোশাক নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ২১ এপ্রিলের ইস্টারের সকালের ভয়াবহ জঙ্গি হামলার সাত দিন পর গত রবিবার এই ঘোষণা করলেন দেশের প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপাল সিরিসেনা। মুখ ঢাকা পোশাকে মুখ চিনতে সমস্যা হয় বলেই এই নিয়ম চালু করল সংশ্লিষ্ট সরকার।

“জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে এই নিষেধাজ্ঞা। পরিচয় বোঝা মুশকিল হবে, এমন যে কোনও মুখ ঢাকা পোশাক যেন কেউ না পরে”। এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন সিরিসেনা। সোমবার থেকে নিষেধাজ্ঞা জারি হবে। প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন তাঁর আপতকালীন ক্ষমতা ব্যবহার করে যে কোনও মুখ ঢাকা পোশাক নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল।

যদিও এই নিষেধাজ্ঞাটি মুসলিম নারীদের একাংশের পরা নিকাবকে উদ্দেশ্য করে জারি করা, তবে প্রেসিডেন্টের ঘোষণা নিকাবের কোনো উল্লেখ ছিল না।

এদিকে এই ধরনের নিষেধাজ্ঞায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মুসলিম ও নন-মুসলিম শ্রীলঙ্কানরা। আল জাজিরা বেশ কয়েকজন নারীর সাথে কথা বলেছে। তাদের কয়েকজন সরকারের এমন সিদ্ধান্তে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।

তাদের মধ্যে একজন হলেন দেশটির একজন নারী সংসদ সদস্য হর্ষানা রাজাকরুনা। তিনি বলেন, আমি মুসলিম কমিউনিটির অনেকের সাথে এ বিষয়ে কথা বলেছি। তারা সরকারের এই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট। তবে খ্যাতিমান একজন সমাজকর্মী, যিনি মুসলিম, বলেছেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে সরকারের সিদ্ধান্ত নিয়ে তেমন কিছু বলার নেই। তবে তার শঙ্কা বিষয়টি শুধু নিকাবেই থাকবে না। আরও অগ্রসর হতে পারে সরকার। তার দাবি, ইতোমধ্যেই কিছু বিষয়ে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি অগ্রসর হওয়ার ঘটনা ঘটছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply