স্মার্টফোনের জন্য শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

|

স্টাফ রিপোর্টার,মানিকগঞ্জ

মানিকগঞ্জে আলোচিত শিশু সাইফুল হত্যা মামলায় একমাত্র আসামি সোহেল মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শাহানা হক সিদ্দীকা এই রায় দেন। একই সাথে তাকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড এবং অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৪শে জুন সকালে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার চর বেউথা গ্রামের কাশেম মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া প্রতিবেশি মো: বিল্লালের চার বছরের শিশুপুত্র সাইফুল ইসলামকে বিস্কুট কিনে দেয়ার লোভ দেখিয়ে বাড়ি থেকে তার বাবার ২২ হাজার টাকা মূল্যের স্মার্ট মোবাইল নিয়ে আসতে বলে। সোহেল মিয়ার কথা অনুযায়ী ওই শিশু তার বাবার স্মার্ট ফোনটি নিয়ে আসলে সে ওই শিশুটিকে চর বেউথা গ্রামের ইউনুসের ধইনচা ক্ষেতে নিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ পুতে রাখে।

শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার পর গ্রামবাসী জানায়,সাইফুলকে সোহেলের সাথে দেখেছিলেন। এর সূত্র ধরেই গ্রামবাসী সোহেলকে ধরে পুলিশে সোর্পদ করে। পরে পুলিশের কাছে সোহেল সাইফুলকে হত্যা ও লাশ ঘুম করার কথা স্বীকার করে। তার স্বীকারোক্তিতেই পরদিন সাইফুলের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এঘটনায় সোহেল মিয়াকেই একমাত্র আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন শিশুটির বাবা। ২০১৩ সালের ৩ সেপ্টেম্বর সোহেলকে অভিযুক্ত করে আদালতে চাজর্শিট দেয় পুলিশ। আদালত ১০জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণের পর বৃহস্পতিবার আসামির উপস্থিততে আদালত রায় প্রদান করেন ।
টিবিজেড/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply