তৃতীয় লিঙ্গের কর্মকর্তা নিয়োগ দিবে পাকিস্তান পুলিশ

|

এবার তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরাও পুলিশ বাহিনীতে একজন পূর্ণাঙ্গ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবে, এমন সিদ্ধান্তই নিয়েছে পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের সরকার।

২০০৯ সালে সুপ্রিম কোর্টের এক রায়ে পাকিস্তানে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা অন্যান্য নাগরিকদের মতোই সর্বোচ্চ নাগরিক অধিকারের স্বীকৃতি পায়।

সিন্ধ পুলিশ প্রধান সৈয়দ কালিম ইমাম বলেন, আমরা তাদেরকে পুলিশ বাহিনীর পূর্ণাঙ্গ অংশ হিসেবেই তৈরি করে নেব। তারা স্রষ্টার একটি অন্যতম সৃষ্টি, আমাদের উচিত তাদের পাশে দাড়ানো।

মানবাধিকার কর্মীরাও একে একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবেই গণ্য করছেন।

বাংলাদেশ ও ভারতের মতো পাকিস্তানেও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা ব্যাপক বৈষম্যের শিকার হন। বাংলাদেশ ও ভারতের মতোই দেশটিতে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা হয়তো নির্জন স্থান বেছে নেন বসবাস করার জন্য অথবা যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করেন।

২০১৭ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী দেশটিতে প্রায় এগারো হাজার তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ রয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের বিভিন্ন দাতব্য সংস্থার হিসেব মতে দেশটিতে প্রায় ৫ লক্ষ তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের বসবাস।

যমুনা অনলাইন/ইএ









Leave a reply